রাণীশংকৈলে ভ্যাটের মামলায় ভাটা মালিক সাজু গ্রেফতার

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁও জেলা রাণীশংকৈল বিষ্ণপুর গ্রামে স্বাধীন ব্রিক্স’র স্বত্তাধিকারী সাজু শেখ ভ্যাটের মামলায় ২৯ জুন শুক্রবার বিকালে থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন। মেসার্স নাহার ব্রিক্সের স্বত্তাধিকারী আঃ রশিদের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে ভ্যাটের মামলা মাথায় নিয়ে ২০১৪ সাল থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল স্বাধীন ব্রিক্সের স্বত্তাধিকারী সাজু শেখ।

মেসার্স স্বাধীন ব্রিক্সের স্বত্তাধিকারী সাজু শেখ জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে তাকে কৌশলে সরিয়ে দিয়ে ভাটা দখল করে সৎ ভাই আঃ রশিদ। মাদক সেবনের ইস্যু খাড়া করে রংপুর মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করে। সেখানে তিন মাস চিকিৎসাধীন রাখা হয়। আমি ভাটায় আসতে না পারি এ পরিরকল্পনায় আঃ রশিদ স্বাধীন ব্রিক্স পরিচালনা করে ৭,১৬,১৪৬.২৫ টাকা ভ্যাট বকেয়া রাখে।

দায়ভার আসে আমি সাজু শেখের উপর। অভাবের তাড়নায় ভাটায় আসতে না পেরে ঢাকায় রিক্সা চালিয়ে কোন রকমে জীবন যাপন করার স্বপ্নে সময় পার করছিলাম। আমার দুই স্ত্রীকে সাথে নিয়ে আমরা মালিকানা বুঝিয়ে নেওয়ার জন্য ভাটা অফিসে অবস্থান নিই। তা জানতে পেরে রশিদ ভাই থানা পুলিশে খবর দেয়। থানা পুলিশের এসআই তাজরুল, এএসআই আসাদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দিয়ে সাজুকে গ্রেফতার করা হয় এমন দাবি সাজু শেখের দুই স্ত্রীর।

নাহার ব্রিক্সের স্বত্তাধিকরী আঃ রশিদ আমাদের প্রতিনিধিকে জানান, ২০১৪ সালের বকেয়া ভ্যাট আমি পরিষোধ করব কারণ ওই সময় ভাটা আমিই চালিয়েছিলাম। আমি ২০১৫ সালে স্বাধীন ব্রিক্সের নাম পাল্টিয়ে নাহার বিক্সের নামকরণ করা হয়।

রাণীশংকৈল থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আঃ মান্নান জানান, সাজু শেখকে ভ্যাটের মামলায় আটক করে ৩০ জুন সকালে তাকে জেল হাজতে পাঠান হয়েছে।