কাশিয়ানীতে কলেজছাত্রকে পেটানোর ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর রামদিয়া সরকারি এস, কে কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র মাহাদুদ হাসান (১৭) কে পেটানোর ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। বুধবার (২৫ জুলাই) সকালে ওই ছাত্রের চাচা সাহিদুল ইসলাম খান বাদী হয়ে কাশিয়ানী থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামী হলেন- উপজেলার ছোট বাহিরবাগ গ্রামের মৃত হাচেন উদ্দিন শরীফের ছেলে লাড্ডু শরীফ (৫০), খরম শরীফের ছেলে টুলূ শরীফ (২২), শহিদ মিয়ার ছেলে শাকিল মিয়া (২০), সালাম শরীফের ছেলে বরকত শরীফ (২৩) ও একই উপজেলার রামদিয়া গ্রামের শওকত খন্দকারের ছেলে সুমন খন্দকার (২২)।

মামলায় সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ জুলাই দুপুরে কলেজছাত্র মাহামুদ হাসান নিজবাড়ী ফুকরা থেকে ভ্যানযোগে রামদিয়া যাচ্ছিল। রামদিয়া সরকারি এস, কে কলেজ গেটের সামনে পৌছলে পূর্বশত্রুতার জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আসামীরা রামদা, লোহার রড, লাঠি ও দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সংঘবদ্ধ হয়ে ওই ছাত্রের ওপর বর্বর হামলা চালায়।

এতে মাহামুদ হাসান গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ সময় তার কাছে থাকা টাকা ও স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায় ওই হামলাকারীরা। পরে ওই ছাত্রের চাচা সাহিদুল ইসলাম খান বাদী হয়ে কাশিয়ানী থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন।

এদিকে, এ ঘটনায় রামদিয়া সরকারি এস, কে কলেজ ক্যাম্পাস এবং ফুকরা গ্রামে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। আবারও বড় ধরণের সংঘাতের আশংকা করছেন স্থানীয়রা। কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামলার নিশ্চিত করে বলেন, ‘আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’