কিশোরগঞ্জে পৃথক ঘটনায় দু’জনের মৃত্যু

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি : নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় পৃথক দুটি ঘটনায় দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনা দুটি ঘটেছে উপজেলা পুটিমারী ইউনিয়নের কালিকাপুর বাগান বাড়ী ও কালিকাপুর বাজার এলাকায়।

সরজমিনে ও এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায় বুধবার দুপুর ২ টার সময় পুটিমারী ইউনিয়নের বাগানবাড়ি গ্রামের মৃত বকুল মিয়ার ছেলে আদম (১৭) চারাল কাটা নদীতে বন্ধুদের সাথে গোসল করতে গিয়ে একই গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে বাসদ (১২) নদীতে ঘুরনায়ন পাকে পরে হাবুডুবু খেতে দেখে, তাকে বাঁচাতে গিয়ে সে নদীতে ডুবে যায়।

এলাকাবাসী অনেক খোঁজাখুঁজি করে তার সন্ধান পায়নি। এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত অফিসার রেদওয়ানুজ্জামান বলেন রংপুর থেকে আমাদের ডুবরী দল এসেছে তারা এখন পর্যন্ত তাকে খোঁজ করছে। এ রিপোট লেখা পর্যন্ত ছেলেটির সন্ধান পাওয়া যায়নি

অপর দিকে কালিকাপুর বাজার এলাকায় বিকাল চার দিকে সুলতান আলীর ছেলে সুমন (২৮) তার মুদির দোকান পরিস্কার করার সময় বিদ্যুতের তার ছিড়ে পিঠে পরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়। তাৎক্ষনিক ভাবে এলাকাবাসী তাকে কিশোরগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্ত্যব্যরত ডাক্টার না থাকায় তার মৃত্য হয়।

তার বাবা সুলতান আলী অভিযোগ করে বলেন ডাক্টার সময় মত আমার ছেলেকে দেখলে তার মৃত্যু হতনা। এ ব্যাপারে কর্ত্যব্যরত ডাক্টার সুজাত শরীফ জেমসের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি বলেন এ ব্যাপারে আপনি অফিসের সময় সামনা-সামনি এসে কথা বলেন। কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ হারুন অর রশিদ বিষয় দুটি নিশ্চিত করেন।