নরসিংদীতে ৩০ লাখ টাকা মুক্তিপন না পেয়ে ৭ বছরের শিশুকে হত্যা , ১ জন আটক
The news is by your side.

নরসিংদীতে ৩০ লাখ টাকা মুক্তিপন না পেয়ে ৭ বছরের শিশুকে হত্যা , ১ জন আটক

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীতে ৩০ লাখ টাকা মুক্তিপন না পেয়ে রায়পুরা উপজেলার হাসিমপুর এলাকার দরিদ্র সহজ সরল সুজন মিয়ার সাত বছরের শিশু সন্তান মামুনকে অপহরণ করে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে অপহরণকারীরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় যে, গত ২৩/০৬/২০১৮ ইং তারিখ দুপুর ১২.৩০ ঘটিকার সময় সুজন মিয়ার চাচাতো ভাই সম্পর্কের একই সীমানার এলাকার প্রভাবশালী জয়নাল মাষ্টারের তিনতলা বাড়ির ছাদের উপর কাজের মহিলা ও তার ছোট স্ত্রী নিখোঁজ শিশু মামুনের বিভৎষ লাশ দেখতে পেয়ে লোকজনকে জানায়। পরে রায়পুরা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল হতে লাশ উদ্ধার করে এবং বাড়ির মালিক জয়নাল মাষ্টার (৫৫) ও তার ছোট ছেলে আরমান (২৮) কে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ঘটনার প্রেক্ষিতে মৃত মামুনের বাবা সুজন মিয়া বাদী হয়ে রায়পুরা থানায় অপহরন পূর্বক হত্যা মামলা রুজু করে, রায়পুরা থানার মামলা নং- ৪৪ তাং- ২৪/০৬/১৮ ইং ধারা দঃ বিঃ আইনের ৩৬৪-ক/৩০২/২০১/৩৪, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা শিশু মামুনকে হত্যার ঘটনা অস্বীকার করে, বাদীর আবেদনের প্রেক্ষিতে ইং- ০৩/০৭/২০১৮ ইং তারিখ মামলাটির তদন্তভার নরসিংদী জেলা ডিবির এসআই আঃ গাফ্ফার- পিপিএম এর উপর দেয়া হয়, মুক্তিপন দাবির মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে ডিবি পুলিশ গত রায়পুরা থানা এলাকার তুলাতলি সাকিনের একটি পোল্ট্রি খামার থেকে শ্রমিক আসামী মোঃ নাসির (২২) পিতা- জহির ইসলাম সাং- মোহাম্মপুর দক্ষিন পাড়া থানা- রায়পুরা জেলা- নরসিংদী এ/পি নানামৃত আবুল কাশেম এর বাড়ি সাং- রাজনগর, থানা- রায়পুরা, জেলা- নরসিংদীকে আটক করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে শিশু মামুন হত্যার সহিত জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।

এ প্রসঙ্গে আজ মঙ্গলবার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সময় পুলিশ সুপার বলেন, সাইফুল্লাহ আল মামুন বলেন, অপরাধী যত বড়ই কিংবা প্রভাবশালী হোক না কেন অপরাধীকে শাস্তি পেতেই হবে। উক্ত শিশু হত্যা ঘটনার মূল রহস্য উৎঘাটন করতে আমাদের পুলিশ বাহিনী সফল হয়েছে এবং এই হত্যাকান্ডে আরো তথ্যাদি বের করতে সর্বদা আমাদের পুলিশ কর্মকর্তারা সচেষ্ট থাকবে।