নাটোরে জমি নিয়ে বিরোধ বাড়ি-ঘর ভাংচুর, আহত ২

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বাগাতিপাড়ায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও মা-ছেলে আহত হওয়ার ঘটনা ঘঠেছে। এ ঘটনায় বাগাতিপাড়া মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বেগুনিয়া গ্রামের মৃত হযরতের মেয়ে শহিদা বেগমের সাথে দীর্ঘদিন থেকে ভাই ঝল্টু, পল্টু, মন্ডল, আনছার ও সাখাতের সাথে জমির অংশ নিয়ে বিরোধ চলছিলো। বৃহস্পতিবার দুপুরে শহিদার ভাই এবং ভাইয়ের ছেলেরা মিলে বাড়িঘর ভাংচুর করতে শুরু করলে ভাগ্নে শরিফ বাধা দেয়।

এ সময় তারা শরিফকে মারপিট করে মারাত্বক ভাবে জখম করেছে বলে অভিযোগ করা হয়। পরে শরিফকে বাগাতিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে অবস্থা আশঙ্খা জনক হওয়ায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বিষয়টি নিয়ে অভিযুক্ত ঝল্টু ঘটনা মিথ্যা দাবি করে বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ মিথ্যা।

বরং আমার বোন আমাদের জমি রাতের আধারে দখল করে নিয়েছে। ভুক্তোভোগী শহিদা বেগম দাবী করেন, আমার বাবা জীবিত থাকতে আমাকে সামান্য কিছু জমিতে একটি ঘর করতে দেয়। পরে বাবার মৃত্যু পর আমার প্রাপ্য অংশ দাবী করলে আমাকে দেয় না।

বরং মাঝে মধ্যেই আমার ভাই ও ভাইয়ের ছেলেরা ঘর ভেঙ্গে জমি থেকে উচ্ছেদ করার হুমকি দিতো এবং এর আগে জমিতে লাগানো গাছও কাটেছে তারা। বৃহস্পতিবার দুপুরে তারা আমার ঘরবাড়ি ভাংতে শুরু করলে আমার ছেলে শরিফ বাধা দেয়।

এ সময় তারা আমার ছেলেকে মারপিট করে মারাত্বকভাবে জখম করে এবং আমার ছেলের একটি ভ্যান ছিলো সেটাও ভাঙ্গে। আমি দ্বারে দ্বারে ঘুরেও বিচার পাচ্ছি না। এ ব্যাপারে বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি (তদন্ত) স্বপন কুমার চৌধুরী বলেন, মারপিট ও বাড়িঘর ভাংচুরের ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।