৬২দিনেও তাসপিয়া হত্যার রহস্য উৎঘাটন হয়নি, মামলা ডিবিতে স্থানান্তর

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ সাম্প্রতিকতম সময়ের বেশ আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর মামলার একটি হল স্কুলছাত্রী তাসফিয়া আমিন হত্যা মামলা। যে মামলার তদন্তের দায়িত্বভার এসে পৌঁছেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

দুই মাসেও তদন্তে কার্যকর অগ্রগতি না হওয়ায় চট্টগ্রাম নগর পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার মাহবুবর রহমান পতেঙ্গা থানা থেকে সরিয়ে তদন্তভার ডিবিকে দিয়েছেন।
সোমবার (৩ জুলাই) চট্টগ্রামের ভারপ্রাপ্ত জেলা সেশন জজ ও তৃতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. আব্দুল মজিদের আদালতে ফিরোজ আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

এসময় আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপকমিশনার (বন্দর) মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, সিএমপির সর্বশেষ মাসিক সভায় কমিশনার মামলাটি তদন্তের জন্য ডিবিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

সিএমপি কমিশনারের নির্দেশনা অনুযায়ী পরিদর্শক স্বপন কুমার সরকারকে তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মামলাটি চাঞ্চল্যকর হওয়ায় উপ-কমিশনারের নেতৃত্বে একটি তদন্ত টিমও গঠন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২ মে সকালে নগরীর পতেঙ্গায় নেভাল একাডেমির অদূরে ১৮ নম্বর ঘাট এলাকায় কর্ণফুলী নদীর তীরে তাসফিয়া আমিনের (১৬) মরদেহ পায় পুলিশ।
প্রথমে পরিচয় নিশ্চিত না হলেও দুপুরে পরিবারের লোকজন থানায় গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করেন। তাসফিয়া কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার ডেইলপাড়া এলাকার মো. আমিনের মেয়ে।