"অসহিংসতা ও শান্তি : চ্যালেঞ্জেস এবং ভবিষ্যৎ ভাবনা" বিষয়ক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত
The news is by your side.

“অসহিংসতা ও শান্তি : চ্যালেঞ্জেস এবং ভবিষ্যৎ ভাবনা” বিষয়ক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত

বিশ্ব শান্তি দিবস উপলক্ষ্যে জেসিআই বাংলাদেশ আয়োজন করলো ” অসহিংসতা ও শান্তি : চ্যালেঞ্জেস এবং ভবিষ্যৎ ভাবনা” শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক I ঢাকার দি ডেইলি ষ্টার এর আজিমুর রহমান হলে সম্প্রতি সভাটি অনুষ্ঠিত হয়েছে I বাংলাদেশ এর প্রেক্ষাপট এ অসহিংসতা ও শান্তি প্রতিষ্ঠা নিয়ে বিশিষ্ট চিন্তাবিদ, সমাজ সেবক, গবেষক, শিক্ষক, উদ্যোক্তা, সংস্কৃতি কর্মী, আইনজিবি, সুশীল সমাজ সহ অনেকেই তাদের বক্তব্য, চিন্তা এবং ধারণা তুলে ধরেন I
জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল বিশ্বের তরুণ এবং কর্মক্ষম নাগরিকদের নিয়ে গঠিত একটি বিশ্বব্যাপী সংস্থা যারা তাদের সমাজের সমস্যাগুলোর স্থায়ী সমাধানের জন্য নিযুক্ত এবং প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। জে সি আই সমাজের সকল স্তর থেকে কর্মক্ষম নাগরিক নিযুক্ত করে, তরুণ সমাজকে বিকাশ লাভের সুযোগ করে দেয়। তরুণরা যাতে সমাজের ভাল পরিবর্তন আনতে পারে সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে জে সি আই।

প্রতি বছর ২১ এ সেপ্টেম্বর এ, সার বিশ্ব ব্যাপী শান্তি দিবস টি অনুষ্ঠিত হয় I জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের প্রস্তাব দ্বারা ১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত, জেনারেল অ্যাসেম্বলটি “শান্তির নীতিমালা প্রণয়ন ও দৃঢ়ীকরণের জন্য” এবং “সমস্ত দেশ ও জনগণের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার” জন্য একটি দিন হিসাবে ঘোষণা করেছে। এটা প্রতিটি যুদ্ধে আমাদের অস্ত্র নিরসনের দিন, পূর্ণ যুদ্ধ থেকে ব্যক্তিগত পরিধি পর্যন্ত, এবং শান্তি , প্রেম এবং সাদৃশ্যের আদর্শকে উন্নীত করে। জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল প্রতি বছর শান্তিপূর্ণভাবে শান্তির অধীনে শান্তি দিবস পালন করে। এর সাথে সমন্বয় করে, জে সি আই বাংলাদেশ ২০১৪ সাল থেকে শান্তি দিবস পালন করছে।

মাননীয় বক্তাগণ, শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষে কিভাবে সমাযে অসহিংসাকে কার্যকরভাবে প্রচারনা করা যায় এবং নীতিনির্ধারক ও বাস্তবায়নকারীরা কীভাবে তা নিশ্চিত করবেন তা নিয়েও আলোচনা করেছেন I একটি শান্তিময় সমাজ গঠন করতে হলে নারী, শিশু, ধনী গরিব নির্বিশেষে মানব অধিকার সুনিশ্চিত করা এবং বৈষম্য কমানো, আইন ও শৃঙ্খলার পরিকল্পিত প্রয়োগ নিশ্চিত করা, তরুণ দের মাদক ও সন্ত্রাসবাদ থেকে বের করে নিয়ে আসা এবং প্রয়োজনীয় কর্মসংস্থান এর সুযোগ করে দেয়া জরুরি I বক্তা গণ দেশের বিভিন্ন সমস্যা গুলোর কার্যকর সমাধান নিয়ে কাজ করার জন্যে তরুণ দেরকে এগিয়ে আসতে বলেছেন I
এই অনুষ্ঠান টি মডারেট করেছেন জনাব জামিল আহমেদ, সিইও, সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট- (যাত্রী), খুশী কবির, সচিব, নিজেরাই করি , ফIরহা কবীর, দেশ পরিচালক, অ্যাকশনয়েড বাংলাদেশ, এসএম রেজওয়ান-উল-আলম, পরিচালক, জ্ঞান ব্যবস্থাপনা, গবেষণা ও গবেষণা পরিচালক ও যোগাযোগ, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ), শাহরিয়ার সাদাত, একাডেমিক সমন্বয়কারী, সেন্টার ফর পিস অ্যান্ড জাস্টিস (সিপিজে), ব্যারিস্টার ওমর এইচ খান, ড. ইফতেখারুজ্জামান, নির্বাহী পরিচালক, ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ, সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, চিফ সম্পাদক ,জিটিভি, সারাবাংলা ডট নেট, ডেইলি সারাবাংলা, নিলুফার করিম, নির্বাহী পরিচালক, ফেইথ বাংলাদেশ, আসমা আফরিন হক, মনিটরিং অ্যান্ড রিপোর্টিং বিশ্লেষক, উইমেন, ইউ এন, পিস এন্ড সিকিউরিটি, ইউ এন উইমেন, মুনির হাসান, সমন্বয়কারী, ইয়ুথ প্রোগ্রাম, প্রথম আলো, ড: আব্দুন নূর তুষার, সিইও, নাগরিক টিভি, শামীমা ইসলাম, সভাপতি, আমারা মানুষ ফাউন্ডেশন, কাজী এম আহমেদ, সভাপতি বোল্ড এবং সিইও , ফিউচার লিডারস, মো: তৌহিদুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান, পিস ও কনফ্লিক্ট স্টাডিস বিভাগের অধ্যক্ষ, ঢাকা ইউনিভার্সিটি ,ওয়াহিদুজ্জামান নূর, বিপিএম সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার, কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগ, কাউন্টার টেরোরিজম ও আন্তর্জাতিক অপরাধ, মোস্তফিজুর রহমান সোহেল, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, অ্যাডভান্স ইআরপি, সাঈদুল আশরাফ কুশল, প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, লাইফসপ্রিং মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট, ড। মো: জাহিদ উল আরেফিন চৌধুরী, সহযোগী অধ্যাপক, পিস ও কনফ্লিক্ট স্টাডিস বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাসেক রহমান, পরিচালক, মেঘনা ব্যাংক, রাজনৈতিক বিশ্লেষক, মিস জাইমা ইসলাম , সম্পাদক ইনচার্জ, স্টার উইকএন্ড, দ্য ডেইলি স্টার, বাংলাদেশ ও জাতীয় সভাপতি, জেসিআই বাংলাদেশ ও তানজিম ফেরদৌস, ইনচার্জ, ডায়ালগ, প্রচারণা এবং পার্টনারশিপ ম্যানেজমেন্ট, দ্য ডেইলি স্টার।

উক্ত রাউন্ড টেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেছেন জেসিআই বাংলাদেশ এর প্রেসিডেন্ট ফায়াজ আতিকুল ইসলাম। উক্ত অনুষ্ঠানের আহবায়ক ছিলেন জে সি আই বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল ডিরেক্টর ইসমত জাহান I