কালকিনিতে মুক্তিযোদ্ধার বসত বাড়িতে হামলা, আহত-৪

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ মাদারীপুরের কালকিনিতে প্রেমের প্রস্তাবে বাধা দেয়ায় মোঃ ফটিক সরদার নামের এক মুক্তিযোদ্ধার বসতবাড়িতে হামলা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে করে মুক্তিযোদ্ধাসহ কমপক্ষে ৪জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আজ রোববার সকালে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী ও পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার আলীনগর এলাকার গদাদরদি গ্রামের আবদুল ফকিরের ছেলে রুবেল ফকির একই এলাকার এক তরুনীকে বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছে। এ প্রস্তাবে সাড়া না পেয়ে রুবেল ফকির শনিবার গভীর রাতে ওই তরুনীর বসত ঘড়ের সিদ কেটে ভেতরে প্রবেশ করে তাকে তুলে আনার চেষ্টা চালায়। এসময় বাড়ির লোকজন তাকে হাতেনাতে আটক করে। খবর পেয়ে রুবেলের পক্ষের কয়েকজন মাতুব্বর এসে ওই বাড়ি থেকে আপোষ-মিমাংশার কথা বলে তাকে ছাড়িয়ে নেন।

এ বিষয়টি নিয়ে একই এলাকার মুক্তিযোদ্ধা ফটিক সরদারের কাছে বিচার দেন ওই তরুনীর অভিবাবক। পরে তার এ প্রেমের প্রেস্তাবে বাধা প্রদান করেন মুক্তিযোদ্ধা ফটিক সরদার। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রুবেল ও তার লোকজন মুক্তিযোদ্ধ ফটিক সরদারের বসত বাড়িতে হামলা চালায়। তাদেরকে বাধা দিলে আহত হন মুক্তিযোদ্ধা ফটিক সরদার, হেনোরা বেগম ও আলীআজমসহ ৪জন। আহতদেরকে কালকিনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধ ফটিক সরদার কালকিনি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

মুক্তিযোদ্ধা ফটিক সরদার বলেন, আমি রুবেলের প্রেমের প্রস্তাবকে বাধা দিলে বিনা কারনে আমার বসত বাড়িতে হামলা চালিয়েছে। আমি থানায় অভিযোগ করেছি। অভিযুক্ত রুবেল ফকিরের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে কালকিনি থানার এসআই মোঃ জসিমউদ্দিন বলেন, এ হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগ পেয়েছি। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।