নওগাঁয় ভাঙ্গা রাস্তা ও বয়তুল্লাহ সেতুর প্রবেশপথ সংস্কার নেই, দুর্ভোগে জনসাধারণ

মোঃ খালেদ বিন ফিরোজ, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ বর্হিবিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আধুনিক রাষ্ট্রের দিগে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সরকার। সরকার ঘরে ঘরে বিদ্যু, হাতের নাগালে ডিজিটাল সেবা দিতে বদ্ধপরিকর। সেই সুবাদে নওগাঁও হয়ে উঠতে শুরু করেছে ডিজিটাল জেলা। ডিজিটাল জেলা হিসাবে সারাদেশে পরিচিতি হতে থাকলেও সড়ক পথে নেই তেমন অগ্রগতি। দিনের পরে দিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পথ চলছে হাজারো মানুষ।

সড়ক গুলোর বর্তমানে বেহাল দশা। একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তার উপরে এক হাটু পানি জমে। যানবাহন গুলো যেন রাস্তার একপাশ থেকে আরেকপাশে দোলনার মতো করে দোলে। বিশেষ করে আত্রাই উপজেলার বান্দাইখাড়া বয়তুল্লাহ সেতু সহ নওগাঁ জেলা শহর আত্রাই উপজেলা পার্শ্ববর্তী রাণীনগর ও মান্দা উপজেলার প্রধান সড়ক গুলোর বেহাল দশা। যে কোন সময়ে বড় ধরনের কোন দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। আত্রাই উপজেলার বান্দাইখাড়া নামক স্থানে আত্রাই নদীর উপর নির্মিত জেলার অন্যতম বৃহত্তম সেতুতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে সেতুর দুই প্রবেশের প্রবেশ দ্বারই যেন মরণফাঁদ।

বিশেষ করে আত্রাই ও মান্দা উপজেলা হতে এসে সেতুতে উঠে নওগাঁ জেলা শহরের যাওয়ার মূল প্রবেশপথ যেন মরণফাঁদ। এবং সেতুর অপর প্রান্তেও গর্ত। নতুন কোন চালক অসতর্কভাবে গাড়ি চালাইলে নিশ্চয়ই গর্তে পড়ে বড় কোন দূঘটনা ঘটতে পারে। এবং সেতুর প্রান্তের এই ভয়ঙ্কর স্থানে কোন বিপদ সংকেতের চিহ্ন ও নাই। সেতুর অপর প¦ার্শের রাস্তায় দেখা যায় ভয়ঙ্কর অবস্থা। যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূঘটনা। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে রাস্তায় অবস্থা মোতাবেক অস্থায়ী ব্যবস্থা করা হয়েছে। বর্তমানে দেশের সকল নদ নদীর পানি বৃদ্ধির সাথেসাথেই এই রাস্তা আরও বিপদজনক হয়ে উঠতে পারে বলেও স্থানীয়রা দাবী করেন।

বান্দাইখাড়া হতে নওগাঁ রোডে সিএনজি চালকরা জানায় অনেক ঝুকিঁনিয়ে সেতুতে যাত্রীদের নিয়ে উঠতে হয়। এখন জামালগঞ্জ মোড় হতে যাত্রী তোলার জন্য সেতুতে উঠার ঝুঁকি হতে রক্ষা পেয়েছি। রাজশাহী হতে জেলা শহর নওগাঁতে আসা রাজশাহী জেলার সিএনজি চালক জানায়, আমি এই রোড়ে আজকে প্রথম। সেতুতে উঠতে অনেক কষ্ট হয়েছে আমার। এখানে গাড়ি একটু জোড়ে বা আবার আস্তে করে সেতুতে উঠতে গেলে পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এলাকাবাসীকে সঙ্গে কথা বললে তারা বলেন দ্রুত বয়তুল্লাহ সেতুর দুই পার্শে মেরামত সহ বান্দাইখাড়া হতে জেলা ও উপজেলা সড়কের কাজ পুনরায় করার জন্য বলেন। তারা আরও বলেন এই রাস্তা গুলো মেরামত হলে আমরা দূঘটনা হতে রক্ষা পাব এবং যথাসময়ে গন্তব্য স্থলে পৌঁছাতে পারব।