নাটোরে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা নিহত

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সিরাজ উদ্দিন (৩৫) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন র‌্যাবের দুই সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার দিনগত রাত ১টা ৩০ মিনিটের দিকে উপজেলার কাটাশকোল গ্রামে এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ ঘটে। সোমবার সকালে র‌্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। জানাযায়, নিহত সিরাজ উদ্দিন উপজেলার বালিয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে। তার বিরুদ্ধে নাটোর জেলার বিভিন্ন থানায় চারটি মাদকসহ মোট পাঁচটি মামলা রয়েছে।

সিরাজ বড়াইগ্রাম উপজেলার অন্যতম শীর্ষ মাদক বিক্রেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন। র‌্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নিয়মিত মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে র‌্যাবের একটি টহল দল রোববার দিনগত রাতে জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন এলাকা টহল শেষে টহল টিম নাটোর ফিরছিলেন। পথে কাটাশকোল ইক্ষু সেন্টার এলাকায় পৌঁছলে তারা কিছু লোকের আনাগোনা দেখতে পান। এসময় র‌্যাব সদস্যরা নিজেদের পরিচয় দিয়ে তাদের আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। কিন্তু তারা এলোপাথাড়ি গুলিবর্ষণ করে পালানোর চেষ্টা করে।

র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। কিছুক্ষণ বন্দুকযুদ্ধ চলার পর বাকিরা পালিয়ে গেলেও গুলিবিদ্ধ একজনকে সেখানে পড়ে থাকতে দেখে র‌্যাব সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ মরদেহটি এলাকার চিহিৃত মাদকবিক্রেতা সিরাজ উদ্দিনের বলে শনাক্ত করেন। আর এ ঘটনায় র‌্যাবের আহত দুই সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি লোহার তৈরি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড পিস্তলের তাজা গুলি, পিস্তলের গুলির একটি খালি খোসা, একটি ম্যাগাজিন, ৫৩০ পিস ইয়াবা, নগদ ৩২০৫ টাকা, একটি চার্জার টর্চ লাইট, ছয়টি পুরানো স্যান্ডেল, একটি মোবাইল ফোন, দুইটি সিম কার্ড উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব-৫ সিপিসি ২, নাটোর ক্যাম্প কমান্ডার ও সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মোঃ আজমল হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, নিহত সিরাজুল ইসলাম বড়াইগ্রামের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী এবং তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদকসহ ৫টি মামলা রয়েছে।