বোরহানউদ্দিনে পরকীয়ার অভিযোগে হামলায় যুবক আহত

0

বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি: ভোলা বোরহানউদ্দিন উপাজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মৃত রবিউল আলমের ছেলে কুঞ্জেরহাট বাজারের মোবাইল ব্যবসায়ী সুুমনকে পরকীয়ার অভিযোগে পিটিয়ে আহত করার ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় ও আহত সুত্রে জানা যায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় কুঞ্জেরহাট সংলগ্ন কাচিয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের অব: সেনা সদস্য শাহেআলমের মেয়ের সাথে পরকীয়ার অভিযোগে সেনা সদস্যের বাসার সামনে কুঞ্জেরহাটের মোবাইল ব্যবসায়ী মো: সুমনকে রবিউল ও রাফসান নামে দুই যুবক পিটিয়ে মাথা ফেটে রক্তাত্ত করার ঘটনা ঘটেছে।

পরবর্তীতে অব: সেনা সদস্য শাহেআলম খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তার বাসায় সুমনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন বলে জানান। এ ব্যপারে আহত মো: সুমন জানান রবিউলের সাথে আমার পূর্বের অমিলের প্রতিশোধ হিসাবে আমাকে অপবাদ দিয়ে হামলা করেছে বলে অভিযোগ করেন। ঘটনার সত্যতা নিয়ে অব: সেনা সদস্য মো: শাহেআলম জানান আমাদের সাথে রবিউলের পূর্ব কোন সম্পর্ক নেই এবং আমার মেয়েকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে গন্ডগোল করাতে আমি বিব্রতবোধ করছি।

ঘটনার সত্যতা সম্পর্কে রবিউল ও রাফসানের বক্তব্য জানতে চাইলে তারা জানান অব: সেনা সদস্যেরর তালাকপ্রাপ্তা মেয়ের সাথে মোবাইল ব্যবসায়ী সুমনের দীর্ঘদিনের পরকীয়া চলছে, আমরা তাদের অনেকবার নিষেধ করেছি কিন্তু তার মানছেন না। ঘটনাক্রমে গতাকাল রাত ৯ টায় সুমন দোকান বন্ধ করে ঐ মেয়ের সাথে পরকীয়ার লিপ্ত অবস্থায় আমরা বাধা দিলে আমাদের ধক্কা দিয়ে পালিয়ে যেতে চাইলে আমাদের সাথে ধস্তাধস্তি হয়ে মাটিতে পড়ে মাথা ফেটে যায়। সুমন ও অব: সেনা সদস্য এখন আমাদের ফাসানোর জন্য মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে।

এ ব্যপারে কাচিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুর রব কাজী জানান আমি ঘটনা শুনে ঘটনা স্থলে গিয়ে আহতকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বোরহানউদ্দিন হাসপতালে প্রেরন করেছি এখন উভয়ের গার্ডিয়ান যে পদক্ষেপ ন্যায় তাতে আমার কোন আপত্তি নেই।