সরকারি কাজে বাঁধা, চাঁদা দাবির অভিযোগে দ্রুত বিচার আইনে ঠাকুরগাঁওয়ে ৫জনের কারাদন্ড

মোঃ মজিবর রহমান শেখ ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও জেলা বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার লাহিড়ী হাটে সাব-রেজিস্ট্রি অফিস ভাংচুর, সরকারি কাজে বাঁধা, চাঁদা দাবি ও মারপিট করার দায়ে এক জনকে ৫ বছরের কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের জেল ও অন্য চারজনকে ৩বছরের কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের জেল দিয়েছে আদালত।

১৭ সোমবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও দ্রুত বিচার আদালতের বিচারক আর.কিউ.এম জুলকার নাইন এ রায় দেন। দন্ড প্রাপ্তরা হলেন: বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ঠুমনিয়া গ্রামের আলিম উদ্দিনের ছেলে লিপটন ওরফে আজমগীর কবির (৩৭) কে পৃথক দুই দিনের ঘটনায় ৫ বছরের কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের জেল।

৩ বছরের কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের জেল দিয়েছে চার জনকে তারা হলো-ওই উপজেলার ঠুমনিয়া গ্রামের আলিম উদ্দিনের ছেলে নয়ন ওরফে নজরুল ইসলাম (৩৫), পাঁচ দোয়াল গ্রামের মৃত ইসমাইল হকের ছেলে সপন ওরয়ে স্বপন আলী (২৯), ধরতলা গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে নজরুল ওরফে নজরুল ইসলাম (৩৮) ও ঠুমনিয়া হাজীপাড়ার মৃত তোজাম্মেল হকের ছেলে শরিফুল ইসলাম ওরফে সুমন(৩০)।

মামলার বিবরন সূত্রে জানাযায়, এ বছরের ২৯ জানুয়ারী বিকেলে লিপটন, নয়ন, স্বপন, নজরুল, সুমনসহ ২৫-৩০জন বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার লাহিড়ী সাব রেজিষ্ট্রে অফিসে ঢুকে হামালা চালিয়ে অফিস সহকারী ও নৈশ্য প্রহরীকে পেটায়। এর পর জিম্মি করে চাঁদা দাবি করে। এছাড়াও পর দিন ৩০ জানুয়ারী লিপটন আবারে অফিসে এসে অফিস পিয়ন মুসলিমকে মারধর করে। এ ঘটনায় সাব রেজিস্ট্রার আব্দুল্লাহ আল মামুন বাদি হয়ে ৫জনের নাম উল্লেখ করে থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করে।