জামালপুর-২ বিএনপি ও জাপা একক প্রার্থী, আওয়ামীলীগে দুই এমপি’র মনোনয়ন যুদ্ধ

সাহিদুর রহমান, ইসলামপুর প্রতিনিধি: জামালপুর-২, ইসলামপুর আসনে বিএনপি’র ধানের শীষ ও জাতীয় পার্টি লাঙ্গল প্রতীকের একক প্রার্থী এবং আওয়ামীলীগের ঘাটি নৌকা প্রতীকের জন্য দুই এমপি’র প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে চলছে যুদ্ধ। এ আসনের মহাজোটের জাপাসহ অন্যান্য দলের আরও দুই একজন করে মনোনয়ন প্রত্যাশী থাকলেও স্থানীয়রা তাদের বসন্তের কোকিল বলেই জানে। কারণ নির্বাচন এলেই হঠা তাদের আগমন ঘটে।

আওয়ামীলীগ:
আওয়ামীলীগের ঘাটি বলে খ্যাত এ আসনে আওয়ামীলীগের শক্তিশালী দুই এমপি প্রার্থী রয়েছে। তারা দুই জনই বর্তমানে এমপি। একজন ৫বারের এমপি ও সাবেক ভূমি প্রতিমন্ত্রী রাশেদ মোশারফের ভাতিজি মাহজাবিন খালেদ বেবী এমপি সংরক্ষিত আসনের, অন্যজন আলহাজ ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি সাধারণ আসনের। একজনের ঐতিহ্য পূণরুদ্ধার লড়াই আরেকজনের উন্নয়ন ভাবনা ও অস্তিত্ব রক্ষা। এই নিয়ে মিছিল মিটিং, প্রচার প্রচারণা, শো-ডাউনসহ সময় পেলেই গণসংযোগে ব্যাস্ত সময় পার করছেন দুই এমপি। মিটিং মিছিলে নৌকা যার আমরা তার এ স্লোগানে চলছে উপজেলা দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে। প্রার্থীরা যে যার কৌশল অবলম্বন করে উপজেলার পৌর শহরসহ প্রতিটি ইউনিয়নের আনাচে কানাচে ঘুরে ঘুরে জনগণকে বুঝাতে চাইছেন তিনি প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজন, মনোনয়ন তিনিই পাবেন।

আলহাজ ফরিদুল হক খান দুলাল ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বর্তমান এমপি উন্নয়নের কর্মবীর নামে খ্যাত। দুই দফা এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর তার ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় উন্নয়মূলক কর্মকান্ডে পাল্টে গেছে নদী ভাঙ্গন রোধ, ব্রক্ষপুত্র নদে ব্রিজ,কালভার্ট,রাস্তা ঘাট নির্মাণ, সড়ক, জনপথ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনসহ গ্রামীন অবকাঠামোর চিত্র। এমপি হওয়ার পর তিনি সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করে এসব উন্নয়ন কর্মকান্ড সাধিত করেছেন।

জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে তিনি উন্নয়ন কর্মকান্ডে কোন বৈষম্য না করে গ্রামীন জনপদের মানুষের ভাগ্য পরিতর্বন করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছে। তার উন্নয়ন কর্মকান্ডকে অব্যাহত রাখতে এলাকাবাসী আবারও তাকে এ আসনের এমপি হিসাবে দেখতে চাচ্ছেন। তাই তিনিও আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩য় বারের মতো এমপি তথা নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে সরকারেরর উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়নসহ দিন রাত ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে।

অন্যদিকে মাহজাবিন খালেদ বেবী মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার খালেদ মোশারফের কন্যা জামালপুরের সংরক্ষিত আসনে এমপি হওয়ার পর গত কয়েক বছর যাবত জামালপুর-২, আসনে সরাসরি ভোটে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়াই করার জন্য সরকারের উন্নয়ন প্রচারণা ও নিজ এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন এবং দীর্ঘ দিন ধরে তিনি সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরতে উপজেলা পৌর, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে উঠান বৈঠক করে যাচ্ছেন।

সময় পেলেই তিনি নিজেকে পরিচিতি করতে এলাকা এসে সাধারন মানুষের দ্বারে যাচ্ছেন এবং নিজেকে ইসলামপুরের ঐতিহ্যবাহী মোশারফ পরিবারের কন্যা হিসাবে পরিচিতি করছেন। জামালপুর-২ ইসলামপুর আসনে একজন সম্ভাব্য এমপি প্রার্থী হিসাবে তিনি ইতো মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তায় রয়েছেন।

জাতীয় পার্টি:
এ আসনের মোস্তফা আল মাহমুদ জাতীয় পার্টি’র উপজেলা শাখার আহবায়ক হয়ে দল গোছানোর চেষ্ঠা করে ঢাকা থেকে মাঝে মধ্যে এলাকায় এসে জাপা তথা মহাজোটের একজন সম্ভাব্য এমপি প্রার্থী হিসাবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

বিএনপি:
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি থেকে একক প্রার্থী হিসাবে সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ সুলতান মাহমুদ বাবু আবারও ধানের শীষের মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে ঢাকা থেকে এলাকায় মাঝে মধ্যে এসে গণসংযোগ করছেন।