নওগাঁয় স্কুল ছাত্র অভি হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ

মোঃ খালেদ বিন ফিরোজ, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর রাণীনগরে ট্রাক্টরের চাকায় পৃষ্ট হয়ে অভি হোসেন ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের ২৪ ঘন্টা পার হলেও চালককে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বুধবার সকাল থেকে রাণীনগর উপজেলার সদরের পাশে সায়েম উদ্দিন মেমোরিয়াল একাডেমির সামনে অভি হত্যার বিচারের ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন, স্পিড ব্রেকার নির্মাণ, পুলিশের লাঠিচার্জের প্রতিবাদে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় নওগাঁ-আত্রাই আ লিক সড়ক অবরোধ করে উত্তেজিতরা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে চালককে গ্রেফতােেরর আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নিলেও বিকেল ৫টা পর্যন্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে।

নওগাঁ সদর থানার চকবুলাকী গ্রামের মো: মোস্তাফিজুর রহমানের একমাত্র ছেলে ও সায়েম উদ্দিন মেমোরিয়াল একাডেমি’র ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র অভি হোসেন। মঙ্গলবার সকালে প্রাইভেট পরে রাণীনগর উপজেলার সদরের বাসট্যান্ড এর দিকে যাচ্ছিল অভি। এ সময় উপজেলা পশু হাসপাতাল মোড়ে প্রথমে সিএনজি অটোরিক্স ও পরে ট্রাক্টর চাপা দেয় অভিকে। এতে ঘটনাস্থলেই অভি মারা যায়। ঘটনায় অভির আত্তীয়-স্বজন ও এলাকাবাসি এই হত্যাকারি চালককে গ্রেফতারের দাবি জানালে পুলিশ তাদের উপর লাঠি চার্জ করে।

এরপর থানায় মামলা দায়ের করা হলেও পুলিশ আসামীদের গ্রেফতার করতে না পারায় বুধবার সকাল থেকে সায়েম উদ্দিন মেমোরিয়াল একাডেমি’র সামনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। এতে নওগাঁ-আত্রাই আ লিক সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় সমাবেশে বিদ্যালয়ের সামনে স্পিড ব্রেকার নির্মাণ, পুলিশের লাঠিচার্জের ও আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার করার দাবি জানানো হয়েছে। রাণীনগর থানার ওসি (তদন্ত) মো: আব্দুল মালেক আন্দোলনরতদের উপর নলাঠি চার্জের অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, জরিতদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নওগাঁ সদরের উপ-পরিদর্শক আব্দুল মামুন এসে হত্যাকারিদের গ্রেফতাদের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয়। তবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সকল প্রকার যান বাহন বন্ধ থাকে। নিহত অভি হোসেনের বাবা মো: মোস্তাফিজুর রহমান হত্যাকারিদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানান। সায়েম উদ্দিন মেমোরিয়াল একাডেমি অধ্যক্ষ ইকবাল মাহমুদ আগামী ২৪ তারিখের মধ্যে আসামীদের গ্রেফতার না হলে ২৫ তারিখ থেকে আরো বৃহত কর্মসূচীর ঘোষণা দেন তিনি। অভির মৃত্যুর পর সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ঘাটক আটক ট্রাক্টর থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় অভি’র মামা বাদি হয়ে রাণীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।