নাটোরে ১৬ হাজার পিচ যৌন উত্তেজক সিরাপ জব্দ – দুই বিক্রেতার কারাদণ্ড

মো. আশিকুর রহমান টুটুল, নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের সিংড়ায় যৌন উত্তেজক সিরাপ তৈরীর ছোট কারখানায় অভিযান পরিচালনা করে ১৬ হাজার দুইশত ত্রিশ পিচ যৌন উত্তেজক সিরাপ জব্দ ও দুই ওষধ বিক্রেতাকে কারাদণ্ড দিয়েছে র‌্যাব-৫, সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের ভ্রাম্যামাণ আদালত।

বুধবার (০৩ অক্টোবর) সকালে উপজেলার বালুয়াবাসুয়ী এলাকায়যৌন উত্তেজক সিরাপ তৈরীর ছোট কারখানায় এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় অবৈধ ঔষধ ও নিষিদ্ধ যৌন উত্তেজক সিরাপ উপাদন, সংরক্ষণ ও বিক্রয় করার অপরাধে মহশিন আলী (৪৫), আলমগীন হোসেন (২৬) নামের দুইজন ওষধ বিক্রেতাকে বিভিন্ন মেয়াদের কারাদণ্ড প্রদান করে।

র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্পের কমান্ডার এএসপি আজমল হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো এবং নাটোর ড্রাস সুপার মাখনুন তাবাসছুম এর যৌথ নেতৃত্বে সিংড়া উপজেলার যৌন উত্তেজক সিরাপ তৈরীর ছোট কারখানায় অভিয়ান পরিচলনা করা হয়। এসময় ষোল হাজার দুইশত ত্রিশ যৌন উত্তেজক সিরাপ, যৌন উত্তেজক সিরাপ ১ ড্রাম, ভেজাল চকলেট ৭ হাজার পিস জব্দ করা হয়।

এসময় উপজেলার বীণগ্রামের হেতু প্রামানিকের ছেলে মহশিন আলী (৪৫), এবং রফিকুল হোসেনের ছেলে আলমগীন হোসেন (২৬) কে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কবর্মকর্তা উভয় আসামীকে ৬মাস করে কারাদণ্ড প্রদান করেন। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশে গ্রেফতারকৃত আসামীদের নাটোর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয় এবং ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশে উদ্ধারকৃত জব্দকৃত আলামত জনসমূখে সমূহ ধ্বংস করা হয়। গণমাধ্যমে পাঠানো র‌্যাব-৫ সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের এক বিশেষ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই সকল তথ্য জানানো হয়।