বরগুনায় প্রধানমন্ত্রীর আগমনে সাংবাদিকদের সংবাদ সংগ্রহে এসবি অফিসের বাধা

বরগুনা প্রতিনিধি: বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর আগমনে সংবাদ সংগ্রহের জন্য জেলা প্রেসক্লাব বরগুনার সাংবাদিকদের এসবি পাস এর তথ্যাদি গায়েব করেছে বরগুনা এসবি অফিস। তথ্য সুএে জানা যায় , গত-২৪ অক্টোবর ২০১৮ইং তারিখ বিধি মোতাবেক জেলা তথ্য কর্মকর্তা বরাবরে এসবি পাস এর আবেদন করে জেলা প্রেসক্লাব বরগুনার সাংবাদিকরা। গত-২৫ অক্টোবর ২০১৮ইং বরগুনা জেলা তথ্য অফিসার অনিমেষ কান্তি হাওলাদারের স্বাক্ষরিত ২৭ অক্টোবর ২০১৮ইং গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেএী শেখ হাসিনা বরগুনার তালতলী উপজেলার তালতলী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত জনসভায় নিউজ কভারেজ করার জন্য সাংবাদিকবৃন্দের এসবি পাসের আবেদন পএ প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য বরগুনা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের এসবি শাখায় পাঠাইলে।

গত ২৫ অক্টোবর ২০১৮ইং পুলিশ সুপার এর বিষেশ শাখার এ এস আই রোজিনা আক্তার কর্তৃক স্মারক: গযো/তথ্য/বর/২০১৮/১৮৮(৫) এর একটি সাংবাকিদের আবেদন স্বাক্ষরিত হয়। এসবি অফিসের দ্বায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা ইন্সেপেক্টর এনামুল যথা সময় সাংবাদিকদের এসবি পাস না দিয়ে ফাইলটি গায়েব করেন। এতে জেলা প্রেসক্লাব বরগুনার সাংবাদিকরা এসবি পাস না পাওয়ায়, প্রধানমন্ত্রীর শুভ আগমনের নিউজ কভারেজ করায় ব্যাহত হয়। এবিষয় সাংবাদিকরা বরগুনা সহকারী পুলিশ সুপার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও বরগুনা পুলিশ সুপার সাহেবকে মুঠোফোনে জানাইলে। তারা এসবি শাখার ইন্সেপেক্টরকে বলার পরে ও কোন সমাধান মেলেনি সাংবাদিকদের।

পরবর্তীতে ডিআইজি মহোদয়, বরিশাল রেঞ্জ, বরিশালকে অবহিত করা হয়। এব্যাপারে জেলা প্রেসক্লাব বরগুনার সাধারন সম্পাদক মো: মানিকুর রহমান বলেন, বরগুনায় প্রধানমন্ত্রীর আগমনে ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের এসবি পাস পাওয়ার জন্য মিডিয়া সংক্রান্ত কাগজপএ আবেদনের সাথে দাখিল করি উক্ত আবেদনটি গায়েব করেছেন এসবি অফিস। আমরা এসবি পাসের বিষয় জানতে চাইলে সাংবাদিকদের সাথে ইন্সেপেক্টর এনামুল খারাপ আচারন করেন। আমি ডিআইজি স্যার কে জানাইলে তিনি তার মেইলে সাংবাদিকদের এসবি পাসের তথ্যাদি।

এসবি অফিসের রিসিপ কপি পাঠাতে বলেন। গত-২৬ অক্টোবর ২০১৮ইং স্যারের বরাবরে একটি লিখিত আবেদন সহ এসবি অফিসের রিসিপ সংযুক্ত কপি মেইলে পাঠাই। আমরা প্রধানমন্ত্রীর শুভ আগমনের নিউজ কভারেজ দিতে না পাড়ায়। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি দেখার দাবী জানাই। এসবি অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইন্সেপেক্টর এনামুল বলেন, আমার আপনাদের সাথে কথা বলার সময় নেই। আপনাদের দেয়া তথ্যাদি ফাইল খুজে এখনো পাইনি, এসবি পাস দেয়া সম্ভাব না বলে জানায় তিনি।