আর্থিক কারণে চিকিৎসা হচ্ছে না রাবি শিক্ষার্থী নুর আলমের

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী নুর আলম দীর্ঘদিন যাবৎ মেরুদ-ের দূরারোগ্য ব্যাধি স্কলাইওসিসে আক্রান্ত। দ্রুত অপারেশন করা না গেলে আজীবনের জন্য পঙ্গু হয়ে যাবেন তিনি।

পারিবারিক অস্বচ্ছলতার কারণে অপারেশনের প্রায় ২ লাখ টাকা যোগাড় করতে পারছে না তার পরিবার। নুর আলম ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি রাজশাহীর বেসরকারি একটি সংস্থার স্কুলে ক্লাস নিয়ে যে টাকা পান তা দিয়েই নিজের পড়ালেখার খরচ চালিয়ে আসছিলেন। মেরুদ-ের হাড় বেঁকে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবে হাঁটাচলা করতে পারেন না তিনি। চিকিৎসক তাকে দ্রুত অপারেশনের পরামর্শ দেন। অপারেশন না হলে ভবিষ্যতে পঙ্গু হয়ে যাবেন তিনি, এমনটাই জানিয়েছেন নুরের তত্ত্বাবধানকারী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক খায়রুন নবী খান। নুর আলমের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তার বাবা আব্দুর রহিম একজন ফেরিওয়ালা। চার ভাই-বোনসহ পরিবারের সদস্য সংখ্যা ছয়জন। নুরের ছোট ভাই এ বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। তার বাড়ি দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায়।

প্রায় দুই বছর আগে নুর কোমড়ে ব্যথা অনুভব করেন। পরে চিকিৎসা নিয়ে জানতে পারেন তিনি স্কলাইওসিস রোগে আক্রান্ত। নূরের সহপাঠী ও দিনাজপুর জেলা সমিতির শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন আবাসিক হল ঘুরে মাত্র দশ হাজার টাকার মতো সংগ্রহ করতে পেরেছেন। বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ফজলুল হক বলেন, ‘আমরা নুরের বিষয়টি শুনেছি। বিভাগ থেকে যতটুকু সম্ভব সহযোগিতা করা হবে। এ ছাড়াও আমাদের শিক্ষকরা ব্যক্তিগতভাবে তাকে সাহায্য করবে।’

নুরকে সহযোগিতার জন্য ০১৭৭৮৩৭৯৫৬৩৮ (ডিবিবিএল পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট) নম্বরে টাকা পাঠানো যাবে।