নরসিংদীতে তিন আসনকে ধরে রাখতে মরিয়া বর্তমান ক্ষমতাশালী ও বিএনপি প্রার্থীরা

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী প্রতিনিধি ঃ নরসিংদীর পাহাড়ী অঞ্চল নিয়ে গঠিত শিবপুর উপজেলা -৩ আসনটিতে শুরু হয়েছে নির্বাচনী উত্তাপ। সবশেষ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সিরাজুল ইসলাম মোল্লা জয়লাভ করলেও এবার আসনটি থেকে দলীয় প্রার্থীর মনোনয়ন চান আওয়ামী লীগ নেতারা। অন্যদিকে, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের ঘাঁটিতে ভাগ বসাতে চায় বিএনপি। যে প্রার্থী এলাকার উন্নয়নে কাজ করবে তাকেই ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে বলে চিন্তা-ভাবনা করছেন এই উপজেলার ভোটাররা।

অবকাঠামোর দিক দিয়ে কিছুটা এগিয়ে থাকা শিবপুর উপজেলায় চলছে নির্বাচনী উত্তাপ। আসনটিতে তৎকালীন বিএনপির একটি ঘাটি বলে পরিচিত আব্দুল মান্নান ভূইয়া থাকার অবস্থায়। কিন্তু তিনি মারা যাওয়ার পর এ আসনটিকে ধরে রাখতে তৎপর তৃণমূল পর্যায়ের বিএনপির নেতাকর্মীরা। বর্তমানে এই উপজেলাটি আওয়ামী লীগের শক্তঘাটি হিসেবে পরিচিত। দশটি জাতীয় নির্বাচনীর মধ্যে ২০১৪ সালের জোটগত নির্বাচনে জয়লাভসহ এই আসনটি তিনবার নিজেদের দখলে রেখেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলকে কাজে লাগিয়ে মহাজোটের প্রার্থী হয়ে আবারও নির্বাচিত হতে চান বর্তমান সংসদ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা।

কিন্তু দলীয় নমিনেশন পেতে সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্জ্ব জহিরুল হক মোহন পুনরায় এই উপজেলায় নৌক প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হচে চান। কিন্তু এবার জোরালো দাবি উঠেছে মহাজোট প্রার্থী নয়, দলীয় প্রার্থীর ওপর আস্থা রাখতে চান আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। আওয়ামী লীগ এর এক কর্মী দুলালপুর ইউনিয়নের আব্দুল বাছেদ মিয়া বলেন, আমরা সুখে দুঃখে যার কাছে গিয়ে একটু পরামর্শ পাবো সেই রকমের একজনকে যেনো প্রার্থী করা হয়। এই আসন থেকে সবশেষ বিএনপির পক্ষে নির্বাচন করেন তোফাজ্জাল মাষ্টার। আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ঘরে ভাগ বসাতে চাই শবপুরের বিএনপি।

এদিকে এই উপজেলাটিতে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যকলাপ করতে দুই পক্ষই প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। গ্রাম পর্যায়ে অলিগলিতে চলছে বর্তমান ক্ষমতাশালী ও বিএনপি নির্বাচনে আসাতে ভোটারদের মাঝে কানাঘোষা।