ভোলায় খাদ্যে বিষক্রিয়ায় ১ শ্রমিকের মৃত্যু ৩ জন হাসপাতালে ভর্তি

আবদুল্লাহ নোমান, ভোলা প্রতিনিধিঃ ভোলার মনপুরায় বাসি খাবার খেয়ে খাদ্যে বিষক্রিয়ায় (ফুড পয়জনিং) আক্রান্ত হলে ৪ নির্মাণ শ্রমিক স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে চিকিসাধীন অবস্থায় একজনের মৃত্যু হয়। অপর তিন শ্রমিকের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ভোলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান কর্তব্যরত ডা. মাহমুদুর রশীদ।

রোববার (৪ নভেম্বর) দুপুর ২ টায় মনপুরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিসাধীন অবস্থায় মারা যায় নির্মাণ শ্রমিক আল মামুন (২০)। সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কালিয়ানী ইউনিয়নের বাসিন্দা আনোয়ারুলের ছেলে সে। অপর অসুস্থ তিন শ্রমিক হলেন একই এলাকার বাসিন্দা নাজমুন (৩০), সবুর (৩০) ও আফতারুল (২৪)।

জানা যায়, মনপুরা উপজেলার রামনেওয়াজ এলাকার নদী ভাঙন রোধ প্রকল্পে ব্লক ডাম্পিংয়ের কাজে নিয়োজিত ছিল আক্রান্ত শ্রমিকরা। নদী ভাঙন রোধ প্রকল্পের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ডন গ্রুপে কাজ করতে প্রায় শতাধিক শ্রমিক সাতাক্ষীরা থেকে এসেছে এখনে। এদের মধ্যে শনিবার চারজন বাসি খাবর খেয়ে আক্রান্ত হন। পরে অবস্থা বেগতিক দেখে রোববার সকাল ৬টা ২০ মিনিটে সদর হাসপাতালে ৪ শ্রমিককে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে রোববার দুপুর ২ টায় একজনের মৃত্যু হয়।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ডন গ্রুপের ম্যানেজার আশরাফুল জানান, রাতের বাসি ভাত ও ডাল খেয়ে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয় ৪ শ্রমিক। রোববার চিকিসাধীন অবস্থায় এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়। অপর আক্রান্ত তিন শ্রমিককে চিকিসার জন্য ভোলা নেওয়া হয়েছে। মনপুরা সদর হাসপাতালের দায়িত্বরত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুর রশীদ জানান, বাসি খাবার খাওয়ায় ফুড পয়জনিং (খাদ্যে বিষক্রিয়া) আক্রান্ত হয়ে ৪ শ্রমিক হাসপাতালে ভর্তি হয়। এদের মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়। অপর তিন শ্রমিককে ভোলা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।