অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ গড়তে লাঙ্গলে ভোট দিন: প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গাঁ

মোঃ মোসাদ্দেক আলী (মীল্লাদ), মিঠাপুকুর (রংপুর) প্রতিনিধিঃ শেখ হাসিনা-এরশাদের মহাজোট সরকারের আমলে সংখ্যালঘুরা সবচেয়ে বেশি নিরাপত্তা পেয়েছে বলে জানিয়েছে জাতীয় পার্টির মহাসচিব, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ এমপি।

তিনি বলেন, অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ গড়তে লাঙ্গল-নৌকার বিকল্প নেই। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানসহ সকল সম্প্রদায়ের লোকজনরা ভালো থাকেন। মুখে হাসি থাকে। শান্তিতে চলাফেরা করতে পারেন। সরকারি সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকেন। অন্য কাউকে ভোট দিলে এখনকার মতো ভালো থাকা সম্ভব হবে না। শুক্রবার বিকেলে গঙ্গাচড়ার মন্ত্রীপাড়াতে সম্প্রীতি সৌহার্দ্যমূলক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গাঁ একথা বলেন।

সংখ্যালঘু হিসেবে নয় মানুষ হিসেবে তাদের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি উল্লেখ করে রাঙ্গাঁ এমপি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর ভোটের দিন বাংলাদেশের পক্ষে থাকতে হবে। উন্নয়নের পক্ষে থেকে লাঙ্গলে ভোট দিয়ে গঙ্গাচড়ায় সকল ধর্মের সম্প্রীতি ধরে রাখতে হবে। বিগত পাঁচ বছরে গঙ্গাচড়াতে বিভিন্ন এলাকাতে মন্দিরের উন্নয়ন, সংস্কার, নির্মাণ করা হয়েছে। শশানের জন্য জমি ক্রয় করা হয়েছে। দূর্গাপূজা সহ বিভিন্ন হিন্দু ধর্মীয় আয়োজনে সহায়তা দেয়া হয়েছে।

আগামীতে নির্বাচিত হলে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যহত থাকবে। কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অজয় প্রসাদ বামনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ধীমান ভট্টাচার্য্য, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুব্রত কুমার সরকার, মহানগর কমিটির সভাপতি সুব্রত সরকার মুকুল, প্রচার সম্পাদক কৃষ্ণ, গঙ্গাচড়া উপজেলা কমিটির সভাপতি ক্ষ্যান্ত রাণী, সাধারণ সম্পাদক পরিতোষ সরকার মাস্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক নির্মল রায়, বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ রংপুর জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক স্বপন রায়, গঙ্গাচড়া উপজেলা সভাপতি লাল মোহন রায়, সাধারণ সম্পাদক প্রতাব কুমার রায়, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ কমিটির মন্দির সংরক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট প্রশান্ত কুমার রায় প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় রংপুর জেলা, মহানগর ও গঙ্গাচড়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের হিন্দু ধর্মীয় নেতা ছাড়াও মন্দির কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।