আশাশুনিতে বৃত্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ও পুরষ্কার বিতরণ

মইনুল ইসলাম, আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি ইউনিয়নের কাদাকাটি দক্ষিণ কালীবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অসীমা রাণী স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা ২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০.৩০ টা হতে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত অসীমা রাণী স্মৃতি পাঠাগার ও কাদাকাটি যুব কমিটির আয়োজনে কাদাকাটি, কুল্যা, দরগাহপুর ও খেশরা ইউনিয়নের ২১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৭৮ জন সমাপনী শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করে।

উক্ত পরীক্ষায় কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব পালন করেন কাদাকাটি দক্ষিণ কালীবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নবীন চন্দ্র সরকার ও হল সুপার ছিলেন মনোরঞ্জন মন্ডল। পরীক্ষা শেষে ফলাফল ঘোষণা, আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। কাদাকাটি আরার মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক ও অসীমা রাণী স্মৃতি পাঠাগারের সভাপতি দিলীপ কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, কাদাকাটি ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি দিপংকর কুমার সরকার।

অসীমা রাণী স্মৃতি পাঠাগারের সদস্য বিপ্লব কুমারের পরিচালনায় এসময় সাবেক শিক্ষক মোসলেম উদ্দীন, আঃ খালেক, কাদাকাটি আইডিয়াল বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একলাছুর রহমান, শিক্ষক নজরুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, বিপ্লব রায়, মরিয়ম খাতুন, মেম্বর অমৃত কুমার সানা, শাশ্বতী রাণী সরকার সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষকবৃন্দ, অবিভাবকবৃন্দ, অসীমা রাণী স্মৃতি পাঠাগারের সদস্যবৃন্দ, কাদাকাটি যুব কমিটির সদস্যবৃন্দ ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে সেরা দশজন বৃত্তি প্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে নগদ অর্থ ও পুরষ্কার বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ।

এদিকে আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক এম এম নুর আলমের ভাগ্নে আসলাম উদ্দীন অসীমা রাণী স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা’১৮ এ অংশগ্রহন করে ১০০ নম্বরের মধ্যে ৭৮ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে। আসলাম উদ্দীন উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের আরার গ্রামের মাওঃ ফরিদ আহমাদ আরারী ও মমতাজ মহল লিপির দ্বিতীয় পুত্র। সে এ বছর কাদাকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে।