আশাশুনি এপি ওয়ার্ল্ড ভিশনে অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন

মইনুল ইসলাম, আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি এপি ওয়ার্ল্ড ভিশনে অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় গাজী মার্কেটের সামনে আশাশুনি-সাতক্ষীরা সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ মানববন্ধনে পরীক্ষার্থী ও স্থানীয়রা অংশগ্রহণ করে। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, চলতি বছরের অক্টোরব মাসে কমিউনিটি ফ্যাসিলিটেটর, কমিউনিটি প্রমোটর, আল্ট্রা পোর গ্রাজুয়েশন ফ্যাসিলিটেটর, স্পন্সারশীপ ফ্যাসিলিটেটর, ভ্যালুচেইন ডেভেলপমেন্ট ফ্যাসিলিটেটর, কমিউনিটি ফ্যাসিলিটেটর ওয়াশ এবং ডাটা এন্ট্রি পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেন আশাশুনি এপি ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ। লিখিত পরীক্ষা থেকে শুরু করে ভাইবা পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় শুধু মাত্র লোক দেখানোর জন্য। স্বজন প্রীতির মাধ্যমে তাদেরকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তারা আরও বলেন, লিখিত পরীক্ষায় ৩২৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।

যার লিখিত পরীক্ষা ৪ঠা নভেম্বর আশাশুনি আলিয়া মাদ্রাসা কক্ষে বেলা ১.৩০ টায় হওয়ার কথা থাকলেও পরীক্ষা নেওয়া হয় বিকাল ৩.৩০ টায়। পরীক্ষা শেষে তড়িঘড়ি করে একদিন পর মোবাইলে ভাইবার জন্য ডাকা হয় কিছু প্রার্থীদের। এর জন্য পত্রিকায় বা নোটিশ বোর্ডে কোন তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। বেশিরভাগ ফ্যাসিলিটেটরদের আগে থেকেই বলা হয়েছে তারা কে কোন পদে পরীক্ষা দেবে এবং তাদেরকেই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে তারা দাবী করেন।

এছাড়া ইনহেল্ডার প্রোজেক্টের আল্ট্রাপোর গ্রাজুয়েশন ফ্যাসিলিটেটর পদে কুল্যা ইউনিয়নে ২জন ও বড়দল ইউনিয়নে ২জন করে ফ্যাসিলিটেটর নেওয়া কথা থাকলেও ভাইবা বোর্ডের পর একজন করে নেওয়া হয়েছে। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, সমাজ সেবক হাবিবুর রহমান, হাতেম আলি, এজদান আলি, তোফায়েল আহমেদ, শহিদুর ইসলাম, রমজান আলি, সাগর মাহমুদ, নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরিক্ষার্থী, জ্বলেমিন হোসেন, আহসান হাবীব, ফয়জুল্লাহ সুমন, সাবরিনা খাতুন, দিপংকর, রিপন, মিলন হোসেন, মিনারুল ইসলাম প্রমূখ।

মানবন্ধনে তারা অবিলম্বে এ অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবী জানিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।