সিংড়ায় জেলগেটে আটক জামায়াত নেতা বিস্ফোরক মামলায় গ্রেফতার

মো. আবু জাফর সিদ্দিকী, সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধিঃ নাটোরের সিংড়ায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপির সভাস্থল থেকে ২টি হাতবোমা উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় স্থানীয় জামায়াত নেতা ও চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান গোলজার হোসেন গিয়াস সহ ৩জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশের দায়ের করা একটি গায়েবী মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে মঙ্গলবার সকালে বের হওয়ার সময় নাটোর জেলগেট থেকে তাদের আটক করে সিংড়া থানা পুলিশের একটি দল। পরে বুধবার দুপুরে বিস্ফোরক মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে। গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলেন, জামায়াত কর্মী আমজাদ হোসেন ও হাবিবুর রহমান। বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুল ইসলাম।

Advertisement

ওসি বলেন, জামায়াত নেতা গিয়াস সহ আটক ৩জনকে প্রতিমন্ত্রী পলক এমপির সভাস্থল থেকে ২টি হাতবোমা উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। উল্লেখ্য, কলম ডিগ্রি কলেজ মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে গত ১লা অক্টোবর বিকেলে চামারীর ইউপি সদস্য আরিফ ও আলালের নেতৃত্বে কলম ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য শফিকুল ইসলামকে মারপিট করা হয়। তারা শফিকের পা ও দুটি দাঁত ভেঙ্গে দেয়। খবর পেয়ে পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে উপজেলার চামারী ইউনিয়নের সামারকোল গ্রামের মহাতাবের পুত্র ও আরিফ মেম্বারের সহযোগী সজিবকে (২০) আটক করে পুলিশ। পরে রাতে তার জবানবন্দী নিয়ে অভিযান চালিয়ে ২রা অক্টোবর রাতে কলম ডিগ্রি কলেজ মাঠের পাশ থেকে মাটিতে পোতা ২টি হাতবোমা উদ্ধার করে পুলিশ।

প্রতিমন্ত্রী পলকের সফরসূচী অনুযায়ী ৩রা অক্টোবর সকালে কলম ডিগ্রি কলেজে চারতলা বিশিষ্ট আইসিটি ভবন উদ্বোধনের প্রোগ্রাম দেওয়া ছিল। পরে ৩রা অক্টোবর সিংড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) আনহার হোসেন বাদী হয়ে বিশৃংখলা ও নাশকতার অভিযোগ এনে ইউপি সদস্য আরিফকে প্রধান আসামি করে অজ্ঞাত ২০/২৫ জনের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক উপাদানাবলী আইন (সং/০২) এর ৪/৫/৬ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।