উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশি জহির রায়হান

ভোলা, নিজেস্ব প্রতিবেধকঃ প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য সাকেবমন্ত্রী আলহাজ্ব আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের প্রতি আস্থা বিশ্বাস রেখে চরফ্যাশন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশি আন্দোলন সংগ্রামের রাজ পথের নির্যাতিত সৈনিক সাহসীও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বর্তমানে যুবলীগ যুগ্ন সম্পাদক জহির রায়হান।

জহির রায়হান চরফ্যাশন পৌরসভা ৬নং ওয়ার্ডের ফরাজী বাড়ীর নুর মোহাম্মদ ফরাজীর ছেলে। পাঁচ ভাই বোনের মধ্যে চতুর্থ সে, এবং সাবেক চরফ্যাশন পৌরসভার প্যানেল মেয়র।

জহির রায়হান ১৯৭৮ সালে সম্রান্ত মুসলিম পরিবারে জম্ম গ্রহন করেন। সে ছাত্র জীবন থেকে বঙ্গ বন্ধুর প্রানের সংগঠন বাংলাদেশ আ’লীগের ছাত্র রাজনীতি সাথে জড়িত ছিলেন। ১৯৯৫ সালে দাখিল ও ১৯৯৭ সালে আলিম সালে পাস করেন। ছাত্র জীবন থেকে জহির ছাত্রলীগের সংগঠনকে বুকে ধারন করে তার রাজনীতি শুরু করেন।

তিনি চরফ্যাশন উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি চরফ্যাসন উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি থেকে ছাত্রলীগের নেতেৃত্ব চলেন। ছাত্র জীবন শেষ করে বর্তমানে চরফ্যাশন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সম্পাদক হিসাবে নিষ্টা ও সততার সাথে বঙ্গবন্ধুকন্যা জন নেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শের সৈনিক হয়ে দলের জন্য ত্যাগ তিতিক্ষা দলকে এগিয়ে নিতে চরফ্যাশন মনপুরার রুপকার সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাস জ্যাকব এমপি ও সিনিয়র নেতাদের নির্দেশে দলের জন্য কাজ করেন।

জহির রায়হান বলেন, বিএনপি জামায়াতের শাসনামলে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা এবং শারীরিক মানসিক অত্যাচারের শিকার হয়েছেন বহুবার। ছাত্রলীগের রাজনীতির মধ্য দিয়ে হাতেখড়ি জোট সরকারের নির্যাতনের শিকার হয়ে রাজনীতিক প্রতি হিংসা বিভিন্ন মামলায় জড়িয়েছে আমাকে। তিনি আরও বলেন আমি একজন আওয়ামী রাজনীতিক পরিবারের সরকারী চাকরীজীবি নুর মোহাম্মদ ফরাজীর সন্তান। এবং আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা আওয়ামী পরবিারের সন্তান।

চরফ্যাশন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জহির রায়হান বলেন, আমাদের প্রানপ্রিয় নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আমার প্রানপ্রিয় নেতা আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের প্রতি শতভাগ আস্থা রেখে বলছি বিএনপি জামায়াত জোটের নির্যাতন, ত্যাগ-তিতিক্ষার মূল্যায়ন আমি পাবোই। নেত্রী ও আমার নেতা চরফ্যাশন মনপুরার উন্নয়নের রুপকার আলহাজ্ব আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব যাকে যোগ্য মনে করবেন তাকে দলের প্রয়োজনে নির্বাচিত করবেন।

দলের সিদ্ধান্তে অবিচল আস্থা রেখে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে নেত্রী ও নেতার নির্দেশনা মেনে আগামী দিনেও জীবন বাজি রেখে কাজ করে যাবো। তিনি আরও বলেন,আ’লীগ ও মহাজোটের প্রতিপক্ষ রাজনীতিক দলের অপতৎপরতা কঠোর হাতে মোকাবেলা করেছে তিনি। বিগত সময়ে সংসদ, উপজেলা পরিষদ, পৌরসভাও ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীকে জয়ী করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে তিনি।

ত্যাগ স্বীকার করায় জহির রায়হান শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের আস্থাভাজন হয়ে উঠে। শুধু তাই নয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার ভোট বৃদ্ধি করতে গ্রামে গ্রামে ঘুরে অসহায় মানুষগুলোকে সাধ্যমোতাবেক সহযোগীতা করেন। চরফ্যাশন উপজেলা বাসীর দাবি হিসেবে ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুরুস্কৃত করবেন বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও চরফ্যাশন মনপুরার উন্নয়নের বরপুত্র আলহাজ্ব আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জহির রায়হান বলেন, আমি একজন আ’লীগ পরিবারের সন্তান, আমি মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসি, ছাত্র জীবন থেকে আমি ও আমার পরিবারবর্গ আ’লীগ সংগঠনের সাথে জড়িত। বাংলাদেশ আ’লীগের সভানেত্রী, বিশ্বনেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং মনোনয়ন বোর্ড দলীয় মনোনয়নের প্রতি আমার বিশ্বাস।

আমার রাজনীতিক যোগ্যতা ও কর্মদক্ষতা বিবেচনা ভাইস চেয়ারম্যান মনোনয়ন দিলে আমি আমার নির্বাচনী এলাকাতে নবনির্বাচিত এমপির সাথে উন্নয়ন মুলক কাজ করে জন নেত্রী বঙ্গ বন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করব।