ডেমরায় হাজীনগর প্রি-ক্যাডেট স্কুলের নবীন বরন অনুষ্ঠিত

সালে আহমেদ, ডেমরা (ঢাকা)প্রতিনিধিঃ রাজধানীর প্রানকেন্দ্রের শিক্ষাজোন হিসেবে পরিচিত ডেমরার হাজীনগর প্রি-ক্যাডেট স্কুলে উৎসব মূখর পরিবেশে নবীন বরন -২০১৯ পালিত হলো।

গত পহেলা জানুয়ারী (মঙ্গলবার) সকাল ৮টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে প্রায় চারশত শিক্ষার্থীর উপস্থিতির মধ্যে দিয়ে সাড়ম্বর এ নবীন বরন অনুষ্ঠানটি সম্পূর্ন হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রতিষ্ঠানটির প্রতষ্ঠিাত পরিচালক ওপ্রধান শিক্ষক জনাব মোঃ আমির হোসেন, সহ-প্রধান শিক্ষিকা মিসেস নারগিস আক্তার। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক জনাব শামিম হাওলাদার, আলামনি হোসেন, আবুল হোসেন, আমেনা আহমেদ, সুমি আক্তার, শারমিন আক্তার প্রমুখ।

শুরুতে লাল গোলাপ দিয়ে নবাগত শিক্ষার্থীদের বরন করে নেন। নবীন বরন অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদেশ্যে প্রধান শিক্ষক আমির হোসেন বলেন, এই স্কুলের অনেক মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন স্থানে কর্মরত আছে। অনেকে নামি -দামি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত আছে। ডেমরা তথা হাজীনগরের ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠিানটি উনিশ বছরের পর্দাপন করা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষায় সু-শিক্ষিত হয়ে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠে দেশ প্রেমে উদ্দত্ত হয়ে মানুষের কল্যানে কাজ করার উদাত্ত আহ্বান জানান।

আমাদের এই ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানে আজ নতুন প্রানের স্পর্শে স্পন্দিত ও আনন্দ হিল্লোলে মূখরিত। উচ্চশিক্ষায় শিক্ষা অর্জনের প্রাথমিক ক্ষেত্রে তোমাদের জানাই সু-স্বাগতম। তোমাদের এই আগমন শুভ হোক এই কামনা করি। সর্বশেষ সবার প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও গোলাপি শুভেচ্চা জানিয়ে তার বক্তব্য শেষ করেন।

প্রতিষ্ঠিানটির সহ-প্রধান শিক্ষিকা নারগিস বলেন, আমাদের সকলের প্রিয়, হিল্লোল-কল্লোলে এর সেরা ফলাফলে মাতোয়ারা, সৌন্দর্যে ঘেরা সর্বমহলের প্রিয় হাজী নগরপ্রি-ক্যাডেট স্কুলে তোমাদের জানাই নতুন বছরের একরাশ ফুটন্ত লাল গোলাপের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। তোমাদের প্রতি রইলো শুভকামনা।

অত্র প্রতিষ্ঠানে দুই দশক ধরে শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের নিরলস প্রচেষ্ঠা এবং সকলের সহযোগিতার দ্বারা সম্ভাবনার অনেক দুর পথ এগিয়েছি। তোমরা জেনে খুশি হবেযে আমাদের এই অঞ্চলের মধ্যে এই প্রতিষ্ঠানটি নজরকড়া সাফল্য বয়ে এনেছে। এক মহান ব্রত ধারন করে আছে এ পবিত্র বিদ্যাপিঠে। যার স্লোগান হচ্ছে-শিক্ষাই শক্তি। শিক্ষার জন্য এসো, সেবার জন্য বেরিয়ে যাও। আলোকিত এ অগ্রযাত্রায় তোমাদের জীবন হোক মনোমুগ্ধকর।