মুক্তাগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীতার জানান দিচ্ছেন প্রার্থীরা

আশরাফুল ফরাজী, মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ সংসদ নির্বাচনের আমেজ কাটতে না কাটতেই দরজায় কড়া নাড়ছে উপজেলা পরিষদের নির্বাচন।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী আগামী মার্চে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে অংশনিতে প্রার্থীরা নানা ভাবে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

ইতোমধ্যেই উপজেলা আওয়ামী লীগের অনেক নেতা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে জানান দিচ্ছেন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গণমাধ্যমকর্মী ও দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে অনেকেই যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকও সরব হয়ে উঠেছে।

সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করতে চাওয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রথম সারির নেতারা রয়েছেন বেশ আলোচনায়। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হওয়ার আগেই মুক্তাগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশী দলীয় নেতাকর্মী নিয়ে বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করে চলেছেন।

আওয়ামীলীগ থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশায় রয়েছেন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতিও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এড‌.বদরউদ্দিন আহামেদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বিল্লাল হোসেন সরকার, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান দেবাশীষ ঘোষ বাপ্পী, নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক মোঃ তারেক প্রমুখ।

এদিকে মুক্তাগাছা উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচিত হলেও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ঠতার পর থেকে মুক্তাগাছায় বিএনপি অনেকটা আড়ালে চলে যায়। আর বেশিরভাগ নেতা মামলা হামলার ভয়ে পলাতক ও জেলে থাকায় বিএনপি থেকে এখনো কারো নাম জানা সম্ভব হয়নি।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের আলোচনা এখন পথে-ঘাটে ও চায়ের দোকানে। কে হবেন মুক্তাগাছা উপজেলা পরিষদের পরবর্তী চেয়ারম্যান? সবাই এখন সেই শুভক্ষণের অপেক্ষায় রয়েছেন।

নির্বাচন কমিশন সূত্র থেকে জানা যায়, চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে। সেই মোতাবেক চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে তিনটি ধাপে উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।