ওই রাতে ঘুমাতে পারেননি খালেদা জিয়াও

রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টা মোড়ে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় উৎকণ্ঠায় নির্ঘুম রাত কাটে বেগম খালেদা জিয়ার। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কথা জানিয়েছেন।

রিজভী বলেন, ‘অগ্নিকাণ্ডের সারা রাত চারদিকে বিকট শব্দ, মানুষের আর্তচিৎকার, রাসায়নিক বিস্ফোরণের বিকট শব্দ গ্রাস করেছিল আশপাশের এলাকা। অল্প দূরত্বে ছিলেন খালেদা জিয়া। তার সারারাত উৎকণ্ঠায় কেটেছে। আর আমরা উৎকণ্ঠা নিয়ে আল্লাহর কাছে তার নিরাপত্তার জন্য দোয়া করেছি।’

আজ ২৪ ফেব্রুয়ারি রবিবার সকালে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী এসব কথা বলেন।

এ সময় রিজভি আরও বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে যে পরিত্যক্ত কারাগারে অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে তার চারপাশে রাসায়নিক বিস্ফোরকের ডিপো। চুড়িহাট্টার ওয়াহেদ ম্যানসন থেকে নাজিমউদ্দিন রোডের দূরত্ব মাত্র দেড় থেকে দুইশ’ মিটার। বুধবার রাতভর আগুনের লেলিহান শিখা চতুর্দিকে ছড়িয়ে পড়তে থাকে। বিকট শব্দে বিস্ফোরণের পর বিস্ফোরণ ঘটেছে। আতঙ্কিত মানুষ দিগ্বিদিক ছুটেছে।’

এরপর রিজভী বলেন, ‘চুড়িহাট্টার ওয়াহেদ ম্যানসন থেকে আশপাশের আর ৫ থেকে ৬টি ভবনে যখন আগুন ছড়িয়েছে, দোকানপাট পুড়েছে তখন আতঙ্ক আরও বাড়তে থাকে। আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়ে আশপাশের সড়কেও। আমাদের রাত কেটেছে উৎকণ্ঠায়।’