জামায়াত থেকে শিবিরের সাবেক সভাপতি মঞ্জুকে বহিষ্কার

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাওয়া ও দল বিলুপ্তির পরামর্শ দিয়ে জামায়াতে ইসলামী থেকে ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাকের পদত্যাগ করার পর জামায়াতে ইসলামীর দলীয় সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি মজিবুর রহমান মঞ্জুকে।

শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) নিজের ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে মঞ্জু নিজেই এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে মজিবুর রহমান লিখেন, ‘গতকাল ১৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার আনুমানিক রাত সাড়ে সাতটার দিকে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মকবুল আহমদের পক্ষ থেকে নির্বাহী পরিষদের একজন সদস্য আমাকে জানান যে, আমার দলীয় সদস্যপদ বাতিল করা হয়েছে।’

তিনি বেশ কয়েক বছর যাবত সংগঠনের কিছু বিষয়ে দ্বিমত পোষণ করে আসছিলেন। মৌখিক ও লিখিতভাবে বৈঠকগুলোতে প্রায়ই দ্বিমত ও পরামর্শের কথা দায়িত্বশীলদের জানিয়েছেন।

মজিবুর রহমান মঞ্জু ১৯৮৮ সালে ছাত্রশিবিরে যোগদাকারী করেন। পরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মজিবুর রহমান পরবর্তীতে শিবিরের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি হন। বন্ধ হয়ে যাওয়া দিগন্ত টেলিভিশনের উপনির্বাহী পরিচালকের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

জামায়াতে ইসলামী থেকে ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাকেরর পদত্যাগের করার পর দলটি যখন বিব্রত তখনই আরেক নেতাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত এল।