পাকিস্তানে পাঁচটি বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা, পাইলটদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় সিআরপিএফ জওয়ানদের গাড়িতে আত্মঘাতী জঙ্গি মামলায় ৪৪ জনেরও বেশি জওয়ান নিহত হয়।
ওই হামলার দায় স্বীকার করে নেয় পাক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহম্মদ। এ ঘটনার পরই পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে বিমান হামলা করল ভারত। এরপর দুই দেশের চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

কাশ্মীরের আকাশ থেকে দুটি ভারতীয় যুদ্ধবিমান গুলি করে ভূপাতিত করেছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের এক সামরিক মুখপাত্রের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি এ খবর দিয়েছে। এছাড়া একজন ভারতীয় পাইলটকে আটক করার হয়েছে। এর আগে ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি মিগ-২১ যুদ্ধবিমান কাশ্মীরের বডগামে বুধবার সকালে ভেঙে পড়লে দুজন পাইলট নিহত হন।

বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর টুইটারে বলেন, পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় বিমান বাহিনীর দুটি বিমান গুলি ধ্বংস করা হয়েছে। এছাড়া ভারতের অংশেও আরেকটি বিধ্বংস্ত হয়েছে এবং ভারতীয় বিমানের এক পাইলটকে গ্রেফতার করেছে পাক সেনাবাহিনী।

এদিকে, পাকিস্তানের অন্তত পাঁচটি বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া বিমান বাহিনীর পাইলটদের মাত্র দুই মিনিটের মধ্যে উড্ডয়নের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে।

অপরদিকে, ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং সব আধাসামরিক বাহিনী এবং নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে বৈঠকে বসেছেন। এতে সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফ করা হবে। সীমান্তে সর্বশক্তি মোতায়েন এবং সম্পূর্ণ প্রস্তুতির জন্য সব বাহিনীর মহাপরিচালকদের নির্দেশনা দেয়া হবে। বৈঠকে বেসামরিক লোকজনের নিরাপত্তা এবং অভিযান প্রক্রিয়ার জন্যও পরামর্শ থাকবে।