বিপিএলে সেরা একাদশে ইয়াসির আলী

বিপিএলে সেরা একাদশে স্থান করেছে নিয়েছে চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে খেলা বাংলাদেশি তরুণ ক্রিকেটার ইয়াসির আলী। এবারের বিপিএলের সবচেয়ে আলোচিত ছিলেন দেশি ক্রিকেটার ইয়াসির আলী। বিপিএলে শেষের পর জনপ্রিয় ক্রিকেট বিষয়ক সাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো বিপিএলের সেরা একাদশ প্রকাশ করেছে। তাদের এ সেরা তালিকায় বাংলাদেশি ক্রিকেটার আছেন ৭জন। তাদের মধ্যে তিনি অন্যতম।

ঘরোয়া ক্রিকেটের আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ৬ষ্ঠ আসর জমজমাট ভাবে শেষ হয়েছে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও ঢাকা ডায়নামাইটসের মধ্যকার ফাইনালের দিয়ে শেষ হয় এ আসর। এ ফাইনালে দ্বিতীয় বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

কুমিল্লার হয়ে তামিম ইকবাল এর মহাকাব্যিক ইনিংস খেলেছেন ফাইনালে। তার মহাকাব্যিক ইনিংসের ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ১৭ রানে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে কুমিল্লা।

এবারের বিপিএলে অনেকটাই সফল বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। ব্যাটে-বলে দুই বিভাগে ছিলো দেশিয়দের আধিপত্য। সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের তালিকায় প্রথম স্থানে বিদেশি ক্রিকেটার থাকলেও উইকেট সংগ্রহের তালিকায় সেরা পাঁচে নেই কোনো বিদেশি বলার।

তালিকায় ওপেনা হিসেবে আছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। তার সঙ্গে ওপেনিংয়ে আছেন ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডার সুনিল নারাইন। তামিম ১৪ ম্যাচে করেছেন এক সেঞ্চুরি। আর ২ হাফ সেঞ্চুরিতে ৪৬৭ রান। অন্যদিকে, এক ম্যাচ বেশি খেলে নারাইন করেছেন ২৭৯ রান এবং বল হাতে ঘূর্ণিজাদু দেখিয়ে শিকার করেছেন ১৮ উইকেট।

এ তালিকায় তিন নম্বরে আছেন বিধ্বংসী এবিডি ভিলিয়ার্স। প্রথমবার বিপিএল খেলতে আসা এবি ৬ ম্যাচে এক সেঞ্চুরিতে করেছেন ২৪৭ রান। আর ৪ নম্বরে জায়গা করে নিয়েছেন এবারের বিপিএলের সবচেয়ে আলোচিত দেশি ক্রিকেটার ইয়াসির আলী।

তিনি চিটাগং ভাইকিংসের জার্সিতে ১১ ম্যাচে করেছেন ৩০৭ রান। এবারের আসরে সর্বাধিক ৫৫৮ রানের মালিক রাইলি রুশো আছেন ৫ নম্বরে। ৬ নম্বরে াআছেন চিটাগংয়ের অধিনায়ক ‘মি. ডিপেন্ডেবল’ মুশফিকুর রহিম। তিনি ১৩ ম্যাচে করেছেন তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪২৬ রান। সাতে বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ব্যাট হাতে ৩০১ রান এবং বল হাতে সর্বাধিক ২৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

জায়গা পেয়েছেন ৮ নম্বরে ক্যারিবীয় হার্ডহিটার আন্দ্রে রাসেল। তিনি ১৫ ম্যাচে ২৯৯ রান এবং ১৪ উইকেট শিকার করেছেন। পেসার হিসেবে নয় নম্বরে মাশরাফি বিন মুর্তজা। তার অসাধারণ ক্যাপ্টেন্সির পাশাপাশি ১৪ ম্যাচে নিয়েছেন ২২ উইকেট। ১০ নম্বরে তাসকিন। তিনি ১২ ম্যাচে ২২ উইকেট নিয়েছেন এবং ১১ নম্বর স্থানটি দখল করেছেন আরেক পেসার রুবেল হোসেন। তিনি ১৫ ম্যাচে ২২ উইকেট নিয়েছেন।