বিয়ের মাত্র তিন মিনিটের মাথায় ডিভোর্স

বিয়ের মাত্র তিন মিনিটের মাথায় ডিভোর্স। বিষয়টি শুনলে অবাক লাগলেও এমনি একটি ঘটনা ঘটেছে কুয়েত। ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে হোঁচট খেয়েছিলেন নতুন বউ। তখন তাকে ‘স্টুপিড’ বলে ফেলেছিলেন সদ্য বিবাহিত স্বামী। এমন একটি ছোট ঘটনাকে কেন্দ্র করেই বিয়ে ভেঙে গেল তাদের নতুন এই দম্পত্তির। বিয়ের পরপরই কোর্ট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার আগেই ডিভোর্স নেন তারা।

যা পৃথিবীর ইতিহাসে এর আগে কখনও এত কম সময়ের ব্যবধানে কারো ডিভোর্সের ঘটনা ঘটেনি। আর এটাই কুয়েতের ইতিহাসে সবচেয়ে কম সময়ে বিয়ে এবং বিয়ের পরপরই ডিভোর্সের ঘটনা।

বিষয়টি নিয়ে কিউ৮ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একজন বিচারপতির অধীনে তারা দু’জন বিয়ের কনট্রাক্টে স্বাক্ষর করেন। এর মধ্যেই হেঁটে আসার সময় হোঁচট খান নতুন বউ। আর হোঁচট খাওয়ার পর তার স্বামী তাকে নিয়ে পরিহাস করেন এবং স্টুপিড বলে বসেন। এতে রেগে যান ওই নারী। সঙ্গে সঙ্গেই তিনি বিচারকের কাছে তাদের ডিভোর্সের আবেদন জানান। তাদের বিয়েটা ছিল মাত্র তিন মিনিটের।

এরই মধ্যে ঘটনাটি নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে নেটিজেনদের সমবেদনা পেতে শুরু করেন ওই নারী।

বিষয়টি নিয়ে অনেকেই বলছেন, বিয়ে বাতিল করে দেয়ার এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে একদম ঠিক কাজ করেছেন ওই নারী।

ডিভোর্স বিষয়ে টুইটারে একজন কমেন্ট করেছেন, যে পুরুষ প্রথমেই এমন আচরণ করলেন তাকে ছেড়ে যাওয়াই উত্তম।

অন্য একজন মনে করেন, যে বিয়েতে কোন সম্মান নেই তা শুরু থেকেই ব্যর্থ।