ভারতের ট্রেন সার্ভিস বন্ধ করে দিল পাকিস্তান

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে হামলায় অন্তত ৪৪ সেনা নিহত হয়। আর এই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠনজইশ-ই-মোহাম্মদ। ভারত এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে আসছে। তবে পাকিস্তার বরাবরই বিষয়টি অস্বীকার করে আসছে।

এদিকে, কাশ্মীর নিয়ে সীমান্তে উত্তেজনার জেরে লাহোর থেকে অমৃতসারগামী যাত্রীবাহী ট্রেন বন্ধ করে দিয়েছে পাকিস্তান। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টায় পাকিস্তানের লাহোর থেকে পাঞ্জাবের অমৃতসারের উদ্দেশ্যে ছাড়ার কথা ছিল সমঝোতা এক্সপ্রেসের। কিন্তু ট্রেনটি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। ভারতের গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে ও পাকিস্তানের ডনের অলনাইন ভার্সনের এ খবর প্রকাশ করে।

বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তান রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে উদ্ধৃত করে দেশটির গণমাধ্যম ডন জানিয়েছে, পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত সমঝোতা এক্সপ্রেস চলাচল বন্ধ থাকবে।

ইন্ডিয়া টুডে পাকিস্তানের রেলওয়ের অতিরিক্ত সাধারণ ব্যবস্থাপককে উদ্ধৃত করে প্রতিবেদনে বলেছে, নিরাপত্তা নিয়ে দুদেশের মধ্যে উত্তেজনার মধ্যে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সেজন্য ট্রেন সার্ভিস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তানের রেল মন্ত্রণালয়।

যদিও বুধবার ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করলেও দুদেশের ট্রেন যোগাযোগ অব্যাহত থাকবে। ভারত থেকে ট্রেন নির্ধারিত সময়েই ছাড়বে।

বিষয়টি নিয়ে ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বুধবার রাত ১১ টা ২০ মিনিটে দিল্লি থেকে আটারিগামী সমঝোতা এক্সপ্রেসে চড়ে ভারত ছেড়েছেন ২৭ জন যাত্রী। তাদের মধ্যে তিনজন পাকিস্তানের ও ২৪ জন ভারতীয় নাগরিক রয়েছেন।

সমঝোতা এক্সপ্রেস নামে ওই ট্রেন সার্ভিস ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে চলে। এটি দুই সপ্তাহ পরপর সোমবার ও বৃহস্পতিবার চলে ট্রেনটি।