ভারতে পিএসএল সম্প্রচার বন্ধের পাল্টা জবাব দিল পাকিস্তান

গত বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) পুলওয়ামাতে আরডিএক্স বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি নিয়ে ‘সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স’র গাড়ি বহরে আত্মঘাতী হামলায় ভারতীয় ৪৪ সেনা নিহত হয়। এই বহরে ৭০টি গাড়ির মধ্যে একটি বাস সম্পূর্ণভাবে ভস্মীভূত হয়ে যায়। হামলার পর জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ ঘটনার দায় স্বীকার করেছে।

কাশ্মীরে এই হামলা পর থেকে পাকিস্তান-ভারতের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। এই হামলার জন্য পাকিস্তানকে দায় করে ভারত। আর হামলার রেশ কাটতে না কাটতেই সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) আবারো বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে সংঘর্ষে মেজরসহ ভারতের চার সেনা নিহত হয়েছেন।

এই হামলার ধকল এসে ক্রুয়াঙ্গনেও। জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় চলমান পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) সম্প্রচারের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান আইএমজি-রিলায়েন্স। আর এ মর্মে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে (পিসিবি) মেইলও পাঠিয়েছে রিলায়েন্স। পিসিবিও তাদের পাল্টা জবাব দিয়েছে।

রিলায়েন্সের পাঠানো মেইল ইতিমধ্যে হাতে পেয়েছে পিসিবি। পিএসএলের সাধারণ ব্যবস্থাপক মার্কেটিং ও সেলস শোয়েব শেখ ও বোর্ডের ডিজিটাল মিডিয়া, স্পোর্টস প্রোডাকশন ও মার্কেটিংয়ের জেনারেল ম্যানেজার কামিল খানের নিকট পৌঁছে।

এ বিষয়ে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস সংবাদমাধ্যম বলছে, রিলায়েন্সের মেইলে লেখা হয়েছে- কয়েকদিন আগে এক দুর্ভাগ্যজনক ঘটনায় ভারতীয় সেনারা প্রাণ হারিয়েছেন। এর জেরে অবিলম্বে পিএসএল থেকে ব্রডকাস্ট প্রোডাকশন সার্ভিস তুলে নেয়া হচ্ছে।

মেইলের প্রাপ্তি স্বীকার করে পিসিবি বোর্ডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ওয়াসিম খান জানিয়েছেন, আইএমজি-রিলায়েন্স আমাদের সঙ্গে বাকি টুর্নামেন্টে থাকছে না। এরকম অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় বিকল্প পরিকল্পনাও হাতে নিয়েছি আমরা। আশা করছি, সোমবারের মধ্যে নতুন পার্টনারের নাম ঘোষণা করতে পারব।

বিষয়টি নিয়ে ওয়াসিম আরও জানান, খেলা ও রাজনীতি আলাদাভাবে দেখা উচিত। ইতিহাস বলছে, খেলার হাত ধরে দুই দেশের মানুষের মধ্যে সমন্বয় স্থাপিত হয়েছে। বিশেষত ক্রিকেট ক্ষেত্রে।