মদ পানে ১২০ জনের মৃত, হাসপাতালে ভর্তি ৩২৩ জন

সাম্প্রতি ভারতের আসামে বিষাক্ত মদপানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২০ জনে দাঁড়িয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ৩২৩ জন। আশঙ্কা করা হচ্ছে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

এ ব্যাপারে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, শুক্রবার ভারতের আসাম রাজ্যের গোলাঘাট ও জোড়হাটে এই মদ-বিষক্রিয়ায় মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। রাজ্য সরকার এ ঘটনায় পৃথক দুইটি তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছে।

এদিকে চিকিৎসকরা বলছেন, ‘মদের বিষক্রিয়ার ফলে এই ভয়াবহ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। বিষক্রিয়ার কারণ নিশ্চিত হতে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।’

এদিকে দেশটির স্থানীয় স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, মৃতদের মধ্যে জোড়রহাট মেডিকেল কলেজে ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেখানে ভর্তি রয়েছেন ২১২ জন। গোলাঘাট সিভিল হাসপাতালে মৃতের সংখ্যা ৫৯। ভর্তি রয়েছেন ১০২।

এ ছাড়াও তিতাবর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৮ জন। যারা ভর্তি রয়েছেন তাদের অধিকাংশের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পরিস্থিতি সামাল দিতে ডিব্রুগড় ও তেজপুর মেডিকেল কলেজ থেকে বাড়তি চিকিৎসকদের এই দুই জায়গায় নিয়ে আসা হয়েছে।

এদিকে আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল রবিবার গুয়াহাটিতে জরুরি বৈঠক ডাকেন। তিনি এ ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া নিহতের পরিবারকে ২ লক্ষ করে আর্থিক সহযোগিতা দেয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনার পর ওই এলাকা থেকে অবৈধ মদ প্রস্ততকারক ফ্যাক্টরির কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। আরও বেশ কয়েকজনকে আটকের জন্য অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।