রেডিওতে কণ্ঠস্বর শুনে ২১ বছর পর নিখোঁজ বাবাকে খুঁজে পেল ছেলে

সরকারি খাতায় এই মধ্যে তার নাম উঠে গেছে মৃত হিসেবে। যে কারণে বেশ কয়েক বছর ধরে বিধবার জীবন যাবন করছিলেন ওই ব্যক্তির স্ত্রী। স্বামীর চাকরির পেনশনও পাচ্ছিলেন তিনি। তবে এমেচার রেডিও বা হ্যাম রেডিওর কল্যাণে ২১ বছর পর নিখোঁজ এক ব্যক্তিকে ফিরে পেল তার পরিবার।

বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) সকালে এমন ঘটনাই ঘটল দক্ষিণ ২৪ পরগণার কাকদ্বীপ হাসপাতালে। রাজারাম বঙ্গিরওয়ার নামের ওই ব্যক্তি ভারতের মহারাষ্ট্রের বন দফতরের রক্ষী ছিলেন।

তিনি ১৯৯৮ সালে অফিসের জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়ে যান। এর পর পরিবারের সবাই অফিস, রেলস্টেশন, হাসপাতালসহ অনেক যায়গায় খুঁজে শেষ পর্যন্ত মৃত ভেবে হাল ছেড়ে দেয় তারা।

শেষ পর্যন্ত ২১ বছর পর হ্যাম রেডিওর সুবাদে রাজারাম বঙ্গিরওয়ারের সঙ্গে দেখা হলো ছোট ছেলে মুকেশের। বাবাকে পেয়ে আপ্লুত মুকেশ।

বাবাকে পেলে মুকেশ বলেন, ‘বাবাকে জড়িয়ে ধরে খুব কেঁদেছি। যার ছবিতে মালা পড়াতাম, আজ সে আমার সামনে!’

বিষয়টি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ অ্যামেচার রেডিও অ্যাসোসিয়েশনের অম্বরীশ নাগ বিশ্বাস বলেন, গঙ্গাসাগর মেলায় একটি ব্যারিকেডের ধারে শীতে কাঁতড়াচ্ছিলেন ওই বৃদ্ধ। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই আমরা।

অম্বরীশ নাগ জানান, ওই বৃদ্ধের কথা বুঝতে না পারার কারণে হ্যাম রেডিওতে বৃদ্ধের গলার আওয়াজ ছড়িয়ে দেন তারা। সেই কণ্ঠস্বর শুনেই বৃদ্ধের ছেলে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।