স্বপ্ন পূরণ হল ত্রী এবং ছেলে হারানো সোহেল রানার

অনেক অপেক্ষার পর অবশেষে স্বপ্ন পূরণ হলো সোহেল রানার। কিন্তু যারা এই দিনটির জন্য অধীর অপেক্ষায় ছিলেন, তার প্রয়াত স্ত্রী এবং ছেলে এটা দেখে যেতে পারলেন না। এর আগে গত ২৪ নভেম্বর এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় সোহেল হারিয়েছিলেন স্ত্রী আফরিন ঝুমা এবং ৩ বছরের ছেলে আফরানকে।

অবশেষে জাতীয় দলে সুযোগ পেলেন তিনি। এদিকে আগামী ৯ মার্চ কম্বোডিয়ার বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচের জন্য ২৭ সদস্যের প্রাথমিক জাতীয় দলে আছে সোহেল রানার নাম। এদিকে সেই ভয়াবহ দিনটিতে তছনছ হয়ে যায় শেখ রাসেলের মিডফিল্ডার সোহেল রানার সাজানো সংসার।

এদিকে ফেডারেশন কাপের ছুটি শেষ করে স্ত্রী ও তিন বছরের ছেলেকে নিয়ে মোটরসাইকেলে চেপে মানিকগঞ্জ থেকে ঢাকায় ফিরছিলেন তিনি। সাভারের নবীনগরের নয়ারহাট এলাকায় আসতেই দানবীয় একট ট্রাক তাদের বাইককে চাপা দেয়।

এ সময় ট্রাকের চাকার তলে পিষ্ট হন প্রিয়তমা স্ত্রী এবং সন্তান। তখন হাসপাতালে শুয়ে সোহেল প্রতিজ্ঞা করেছিলেন; স্ত্রী-সন্তানের চাওয়া পূরণ করতে জাতীয় দলে খেলবেন তিনি। আর এরপর থেকে শুরু হয় তার নতুন লড়াই। সব হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করে প্রিমিয়ার লিগে দুর্দান্ত পারফর্মেন্স করেন। যা নজর এড়ায়নি জাতীয় দলের কোচ জেমি ডে’র।

এদিকে ২৭ সদস্যের প্রাথমিক তালিকায় সোহেল ছাড়া নতুন মুখ হিসেবে আছেন শেখ জামালের সেন্টারব্যাক মনজুর রহমান মানিক ও আরামবাগের উইঙ্গার আরিফুর রহমান। এছাড়া দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন আরামবাগের গোলকিপার মাজহারুল ইসলাম হিমেল। এদিকে জানা গেছে, মূল একাদশে সোহেলকে নিয়ে ভাবছেন জেমি ডে।

এদিকে ২৭ সদস্যের প্রাথমিক দল আছেন যারা:
শহীদুল ইসলাম সোহেল, তপু বর্মন, টুটুল হোসেন বাদশা, আতিকুর রহমান ফাহাদ, সোহেল রানা, মামুনুল ইসলাম, নাবীব নেওয়াজ জীবন, রুবেল মিয়া, আনিসুর রহমান, মাশুক মিয়া জনি, মাহবুবুর রহমান সুফিল, ইমন মাহমুদ বাবু, সুশান্ত ত্রিপুরা, মতিন মিয়া, তৌহিদুল আলম সবুজ, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, আশরাফুল ইসলাম রানা, বিশ্বনাথ ঘোষ, বিপলু আহমেদ, সোহেল রানা, ইয়াসিন খান, রহমত মিয়া, জামাল ভুঁইয়া, মাজহারুল ইসলাম, আরিফুর রহমান, রবিউল হাসান, মনজুর রহমান মানিক।