আটক পাইলটকে মুক্তি দিতে পাকিস্তানের কাছে ‘দয়া ও সদয়’ কামনা

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে হামলায় অন্তত ৪৪ সেনা নিহত হয়। আর এ আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ। ভারত এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে আসছে দেশটি। তবে পাকিস্তান এ হামলার দায় নিতে নারাজ। আর এই পাল্টা জবাব দিতে পাকিস্তানের ভেতরে জঙ্গি আস্তানা ধ্বংস করতে ২১ মিনিটের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালায় ভারত।

আর বুধবার পাকিস্তানে হামলা করতে গিয়ে আটক হন ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন। পাকিস্তানি বাহিনীর আক্রণে তার বিমানটি বিধ্বস্ত হবার পর অভিনন্দনকে আটক করা হয়। এছাড়া পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় দুই যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করেন পাকিস্তান সেনারা।

এদিকে, পাইলটকে আটকের পর পাকিস্তানকে সদয় হবার অনুরোধ জানিয়েছেন ভারতীয় লেখক বৈভব বিশাল। সাম্প্রতিক উত্তেজনার জন্য বৈভব বিশাল ভারতীয় গণমাধ্যমকে দোষারোপ করে তিনি। তিনি নিজের ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্টে বিরক্তি তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, আমাদের সংবাদ উপস্থাপকদের নিয়ে যাও। এদের সবাইকে নিয়ে যাও। তোমাদের কাছেই রেখে দাও। এর পর এদের সঙ্গে যা করার কর। আর এদের কখনই আমাদের কাছে ফেরত পাঠিও না, কখনও না।

পাকিস্তানে আটক পাইলটকে ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে এ লেখক ও সংবাদ-বিশ্লেষক বলেন, ‘প্রিয় পাকিস্তান… উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে আমাদের কাছে ফেরত দাও… দয়া কর, সদয় হও!’