গুলশান মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে, পুড়েছে ছাই ২৯১টি দোকান

রাজধানী গুলশান-১ নম্বরের ডিএনসিসি মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ফায়ার সার্ভিসের ২০টি ইউনিট কাজ করে এ আগুন নিয়ন্ত্রেণে আনে। আগুন নেভানোর কাজে ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি কাজ করেছে সেনাবাহিনী। তবে এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া না গেলেও ২৯১টি দোকান পুড়ে ছাই হয়েছে।

শনিবার (৩০ মার্চ) সকাল ৬টার দিকে এই মার্কেটের কাঁচাবাজার অংশে আগুন লাগে।

ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার আতাউর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন জানিয়েছে, আগুন লাগার পর পরই ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ শুরু করে। পরে আরও ৯টি ইউনিট যোগ দেয়। এরপর আগুন নেভানোর কাজে যোগ দেয় সেনাবাহিনী।

ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানিয়েছে, ফজরের নামাজের পরপরই আগুন লাগার খবর পেয়ে তারা এখানে ছুটে আসেন। কাঁচাবাজার থেকে আগুন গুলশান শপিং কমপ্লেক্সে ছড়িয়ে পড়েছে।

আগুন নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি নিশ্চিত করে ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশনস) মেজর শাকিল নেওয়াজ বলেন, ‘গুলশান ১ এ ডিএনসিসি’র কাঁচাবাজার ও সুপার মার্কেটের আগুন আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত আগুন নিভিয়ে ফেলতে।’

এদিকে, ওই মার্কেটের এক ব্যবসায়ী জানান, ২০১৭ সালের ২ জানুয়ারি একই মার্কেটে আগুন লেগে তার সর্বস্ব পুরে যায়। এবারও আগুনে তার চারটি ক্রোকারিজের দোকান পুড়ে গেছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২ জানুয়ারি রাত ২টার দিকে রাজধানীর গুলশান ১ নম্বরে ডিএনসিসি মার্কেটে আগুন লাগে। এর ১৫ মিনিটের মধ্যে কাঁচা মার্কেটটি ধসে পড়ে। ১৬ ঘণ্টা পর নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন। ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডে মার্কেটের প্রায় ৬০০ দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ ঘটনায় ওই বছরের ৩ জানুয়ারি গুলশান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়।