ডেঞ্জার জোনে ৬ মাসের জন্য নৌ চলাচল বন্ধ

কাল বৈশাখীর দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় নৌ দুর্ঘটনা এড়াতে উপকূলের ডেঞ্জার জোনে নৌযান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে বিআইডব্লিউটিএ। আগামী ১৫ মার্চ থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। ফলে এ সময়ে সি সার্ভে এবং বে-ক্রুজিং সনদ ব্যতীত সব নৌযান চলাচল নিষিদ্ধ থাকবে।

এ বিষয়ে বিআইডিব্লিইটিএর একাধিক কর্মকর্তা বলেন, বিষয়টি সমুদ্র পরিবহন অধিদফতর দেখভাল করে। এ বিষয়ে জানতে বরিশাল সমুদ্র পরিবহন অধিদফতরের দফতরে একাধিকবার গিয়েও কোনো কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি।

তবে বিষয়টি নিয়ে মালিকরা বলছেন, ‘বর্তমান মৌসুমের সঙ্গে এ সিদ্ধান্ত সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। বর্তমানে আবহাওয়ার পরিবর্তিত প্রভাবে এ মুহূর্তে উপকূলীয় এলাকা অশান্ত নয়। অথচ বিআইডব্লিউটিএ লঞ্চ মালিকদের সঙ্গে কোনো ধরনের কথা না বলেই এমন একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

২৮টি নৌযানকে ডেঞ্জার জোন ঘোষণা করা হয়। ডেঞ্জার জোন চলাচলকারী ২৮টি নৌযানকে পত্র দিয়ে নিষেধাজ্ঞাকালে চলাচল বন্ধ রাখার জন্য বলা হয়েছে।

মৌসুমি অশান্ত নৌপথ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে, বরিশাল নদীবন্দরের আওতায় চর-আলেকজান্ডার-দৌলতখান, চর-আলেকজান্ডার-মির্জাকালু, চর-আলেকজান্ডার-আসলামপুর, মনপুরা (হাজিরহাট)-তজুমুদ্দিন, চর জহির উদ্দিন-শশীভূষণ, মজু চৌধুরীর-ইলিশা নৌ রুটকে।

এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকায় কোস্টগার্ড, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলা হয়েছে।