দয়া করে পাকিস্তানকে সান্ত্বনা দেয়ার প্রচেষ্টা বন্ধ করুন: মোদি

ভারতীয় বিমান বাহিনীর হামলায় ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে বিরোধীরা যে প্রশ্ন তুলছেন তার কঠোর সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গতকাল শুক্রবার (৮ মার্চ) এক সমাবেশে দেয়া বক্তব্যে মোদি বলেন, ‘পাকিস্তানকে সান্ত্বনা দিতেই এমনটা বলছেন বিরোধীরা।’

এদিকে, পাকিস্তানের মাটি ব্যবহার কোরে জঙ্গিদের আর বিদেশে হামলা চালাতে দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এর মধ্যেই ভারতের কাশ্মীরে এক সেনা সদস্যকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে।

এর আগে পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪০ সেনা নিহতের ঘটনায় চলমান উত্তেজনার মধ্যেই গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় জম্মু-কাশ্মীর থেকে এক সেনাকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে এনডিটিভি জানায়, শ্রীনগরের নিজ বাসা থেকে সন্ত্রাসীরা জওয়ান মোহাম্মদ ইয়াসিন ভাটকে তুলে নিয়ে যায়। অপহৃত সেনাকে উদ্ধারে তৎপরতা শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।

গতকাল উত্তর প্রদেশে এক সমাবেশে যোগ দিয়ে নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘পাকিস্তানের বালাকোটে ভারতীয় হামলায় হতাহতের সংখ্যা নিয়ে বিরোধীরা যে প্রশ্ন তুলেছেন তা অর্থহীন।’ একই সঙ্গে ইসলামাবাদই প্রথম বিমান হামলা নিয়ে টুইট করে বলেও জানান তিনি।

এ সময় নরেন্দ্র মোদি আরও বলেন, ‘যারা প্রমাণ চেয়েছেন তাদের বলছি, ১৩০ কোটি ভারতীয়ই আমার প্রমাণ। দয়া কোরে পাকিস্তানকে সান্ত্বনা দেয়ার এই প্রচেষ্টা বন্ধ করুন।’

এদিকে পাকিস্তানে আর কোন জঙ্গি তৎপরতা চালাতে দেয়া হবে না- এমন ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এ ব্যাপারে ইমরান খান বলেন, ‘কোন সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর ঠাঁই হবে না পাকিস্তানে। আর কেউ আমাদের দেশ থেকে বাইরে হামলা চালাতে পারবে না। নতুন এক অধ্যায়ের শুরু করতে যাচ্ছি আমরা।’

এদিকে দেশে ফিরে আসা ভারতীয় হাইকমিশনার অজয় বিশারিয়া আজ শনিবার (৯ মার্চ) ইসলামাবাদে ফিরে কাজে যোগ দেবেন বলে জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এদিকে পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পাকিস্তান।