পীর বাবা ফুঁ দিলেই টাকা হবে দ্বিগুন, অতঃপর

ফুঁ দিলেই দ্বিগুন হয়ে যাবে টাকা। তাই বিশ্বাস করে আর লোভে পড়ে টাকা তুলে দিল প্রতারকদের হাতে। শেষে টাকা নিয়ে চম্পট। এই ঘটনাটি ঘটেছে নবীগঞ্জ শহরের শেরপুর রোডে অবস্থিত এক্সিম ব্যাংক কার্যালয়ের সামনে। তবে প্রতারকদের আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হচ্ছে- মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার উত্তর বালিগাঁও গ্রামের মৃত মতি মিয়ার পুত্র সালাউদ্দিন (৩৫), দক্ষিণ রাশছিল গ্রামের শরিফ মিয়া (২৫), শ্রীমঙ্গল উপজেলার পূর্বশা গ্রামের মৃত লাল মিয়ার পুত্র জালাল মিয়া (৫৫), শ্রীমঙ্গল উপজেলার রামনগরের সুধির (৩০)।

জানা যায়, উপজেলার সদর ইউনিয়নের গুজাইখাইড় গ্রামের সাজেরা বেগমের স্বামী বিদেশ থেকে টাকা পায় এক্সিম ব্যাংকে। সেই টাকা তুলে দুপুর ১২টার দিকে ব্যাংকের নিচে আসা মাত্রই প্রতারক চক্র ওই নারীকে প্রথমে ভালো মন্দ জিজ্ঞাসা করে একজন নিজেকে হিসেবে পরিচয় দেয়। সে ফুঁ দিলে নাকি যত টাকাই থাকুক তা দ্বিগুন হয়ে যাবে।

মহিলা তখন লোভে পড়ে টাকা দ্বিগুন করার জন্য বলে, আমার ব্যাগে ২১ হাজার টাকা আছে। তাদের কথামত মহিলা চোঁখ বন্ধ করে। এরপরই তারা ফুঁ দেয়ার নাম করে টাকা হাতে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেস্টা করে।

এসময় মহিলা চিৎকার শুরু করলে আশে পাশের মানুষজন তাদের ধরে গনধোলাই দেয়। পাঁচ জনের এই প্রতারক চক্রের একজন পালিয়ে গেলেও চারজন ধরা পরে।