বড় শাস্তির মুখে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটে ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। আর সেই ড্রয়ের কোয়াটার ফাইনালের লড়াইয়ে জুভেন্টাস পেয়েছে আয়াক্সকে। কিন্তু এই ম্যাচে জুভেন্টাস শিবিরে অনিশ্চিত ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। বড় শাস্তির মুখে পড়তে চলেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো?‌

এদিকে গত মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করে জুভেন্টাসকে শেষ আটে নিয়ে গেছেন। স্বয়ং মেসি উচ্ছ্বসিত রোনালদোর পারফরম্যান্সে। অথচ সেই রোনালদো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলতে পারবেন কিনা তা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়।

প্রথম লেগে ০-২ ব্যবধানে হেরেছিল জুভেন্টাস। হারার পর অ্যাটলেটিকো সমর্থকরা রোনালদোকে বিদ্রুপ করতে ছাড়েননি। তাই হারের পর টানেল দিয়ে যাওয়ার সময় রোনালদো বলেছিলেন, ‘‌পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছি। অ্যাটলেটিকো যা একবারও পায়নি।’‌

এদিকে গত মঙ্গলবার তুরিনে উগড়ে দেন রোনালদো। হ্যাটট্রিক করে চমকে দেন। গোটা বিশ্ব যখন রোনালদোর পারফরম্যান্স দেখে তাঁর বন্দনায় মুখরিত। সেই সময় ইতালির এক সংবাদপত্র জানিয়েছে, রোনালদোকে বড় শাস্তির মুখে পড়তে হচ্ছে। কারণ?‌ তাঁর বিশ্রী অঙ্গভঙ্গি।

এদিকে অ্যাটলেটিকোর কাছে প্রথম লেগে হারের পর সমর্থকদের বিদ্রুপের জবাব দিতে দ্বিতীয় লেগে জয়ের পর কুঁচকির দু’‌পাশে হাত দিয়ে কুৎসিত ইঙ্গিত করেন রোনালদো। যা ফুটবলের পরিপন্থী। পর্তুগিজ তারকা কটা ম্যাচের জন্য নির্বাসিত হবেন তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। অবশ্য অনেকে বলছেন, রোনালদো যে অঙ্গভঙ্গি করেছেন, তা দলের সতীর্থদের সামনে।

তাছাড়া দর্শক ভর্তি স্টেডিয়ামে এরকম আচরণ কেউ মানতে পারছেন না। অ্যাটলেটিকো কোচ দিয়েগো সিমিয়নে এই ব্যাপারে বলেছেন, ‘আমি নিশ্চিত, ক্রিশ্চিয়ানো যা করেছে, তা আমিও প্রথম লেগের খেলায় করেছিলাম। তাই রোনালদোর অঙ্গভঙ্গিকে দোষ দেব কী করে?‌’‌ অর্থাত্‍ বিপক্ষ কোচ দাঁড়িয়েছেন রোনালদোর পাশে। এখন দেখার রোনালদোকে শাস্তির মুখে পড়তে হয় কিনা?‌