বনানী অগ্নিকাণ্ডে তরণ ক্রিকেটারের অকাল মৃত্যু

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) দুপুর ১টার দিকে ২১-তলা বিশিষ্ট বনানীর এফ আর টাওয়ারের ৯ তলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটানায় ফায়ার সার্ভিসের ২৫টি ইউনিট আগুন নেভানো ও হতাহতদের উদ্ধারের কাজ করে। পাশাপাশি সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী, নৌবাহিনী, পুলিশ, র‍্যাব, রেড ক্রিসেন্টসহ ফায়ার সার্ভিসের প্রশিক্ষিত অনেক স্বেচ্ছাসেবী কাজ করে।

প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টা চেষ্টার পর রাত ৭টায় আগুন নেভানো সম্ভব হয়। এখন পর্যন্ত ২৫টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৪ জনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে কর্তৃপক্ষ। ৭০ জন আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক), কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহতদের পরিচয় প্রকাশ করা হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে ছিলেন এক ক্রিকেটারও। নাহিদুল ইসলাম তুষার নামের এই ক্রিকেটার মাগুরার স্থানীয় ক্রিকেট লিগে নিয়মিত খেলতেন। মাগুরার এই ক্রিকেটারের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন তার সঙ্গে খেলা খান নয়ন নামের সাবেক আরেক ক্রিকেটার। খান নয়ন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) বর্তমান চ্যাম্পিয়ন দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মিডিয়া ম্যানেজারও। তুষারের স্বপ্ন ছিল জাতীয় পর্যায়ে খেলার। তবে সেই স্বপ্ন আর পূরণ হলো না।

জানা যায়, মাস্টার্স পাস করার পর একটি ট্রাভেল এজেন্সিতে চাকরি জীবন শুরু করেন তুষার। গেল চার বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটিতে কাজ করছিলেন তিনি। গেল বৃহস্পতিবার ৯ তলার অগ্নিকাণ্ডে মারা যান। পরে তার মরদেহ কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়।

নিহত ক্রিকেটার নাহিদুল ইসলাম তুষারের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায় নিজ বাড়িতে তার মরদেহ দাফন করা হয়। তরণ ক্রিকেটারের অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পরিবারে চলছে শোকের মাতম।