বিড়ালকে ৪ টুকরো করে ফেসবুকে পোস্ট দেয়া সেই তরুণী আটক

গতকাল বুধবার রাজধানীর গোপীবাগ এলাকায় একটি বিড়ালকে হত্যা করে তার শরীরের বিভিন্ন প্রত্যঙ্গ আলাদা করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করেছেন এক তরুণী। যা ভাইরাল হওয়ার পর ওই তরুণীকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

আজ ২১ মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘কেয়ার ফর প’স (বিড়ালের জন্য ভালোবাসা)’ এর উদ্যোগে ওই তরুণীকে চিহ্নিত করে পুলিশ নিয়ে সেই বাড়িতে যায় সংগঠনটির স্বেচ্ছাসেবীরা।

এদিকে মুগদা থানার ডিউটি অফিসার এসআই সুশীল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ওই তরুণীর বাসায় আমাদের টিম গিয়েছে। তাকে হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ সময় সংগঠনের পক্ষ থেকে মো. সেলিম নামে একজন বলেন, ‘আমরা মেয়েটির এই বিভৎস কাজে ক্ষুব্ধ। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছি। কিছুক্ষণ আগে পুলিশ তাকে হেফাজতে নিয়েছে।’

মো. সেলিম আরও বলেন, ‘আমরা গত কয়েকদিন চেষ্টা করে তাকে চিহ্নিত করেছি। মেয়েটি বিড়ালটিকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। তবে তার মা ঘটনাটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছেন। তারা আমাদের সঙ্গে মীমাংসা করারও প্রস্তাব দিয়েছিল। তবে আমরা খিলগাঁও থানা পুলিশের সহযোগিতা নিয়েছি।’

এদিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই তরুণী জানায়, তিনি ন্যাশনাল আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী। ২০১৭ সালে এসএসসি পাস করে ইন্টারমিডিয়েটে ভর্তি হলেও তার এন্টিবায়োটিক রিঅ্যাকশন হওয়ার কারণে পড়াশোনা আপাতত বন্ধ আছে। আবারও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হবেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘আমি এর আগে ছোট ছোট সায়েন্স এক্সপেরিমেন্ট করেছি। এটাও কৌতুহল বশত করেছি। আমি খুব দুঃখিত, ভবিষ্যতে এরকম আর করব না।’