ভুল এবং মিথ্যা তথ্য ছড়িয়েছে পাকিস্তান: ভারতীয় সেনা

ভারতীয় বিমানবাহিনীর সদস্য অভিনন্দনকে ছেড়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি জানান আগামিকাল শুক্রবার অভিনন্দনকে মুক্তি দেওয়া হবে। এদিকে ইমরান খানের ঘোষণার পর আজ ২৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার ভারতের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অভিনন্দনকে যাতে ছেড়ে দেওয়া হয়, সেই জন্য পাকিস্তানের উপর কূটনৈতিক চাপ তৈরি করেছিল ভারত। আন্তর্জাতিক দুনিয়া থেকেও অভিনন্দনকে ছেড়ে দেওয়া নিয়ে চাপ তৈরি করা হয়েছিল ইসলামাবাদের উপর।

এ সময় পাকিস্তানের তরফে জানানো হয়েছে, আগামীকালই ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে ভারতের মাটিতে পা রাখবেন অভিনন্দন। আর এই পরিস্থিতিতে পুলওয়ামা নাশকতা এবং তার পরবর্তী সময়ে ভারত-পাক সীমান্তে উত্তেজনা নিয়ে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছে ভারতের স্থল, বিমান এবং নৌ বাহিনীর প্রতিনিধিরা।

এদিকে দেশটির গণমাধ্যমের সংবাদ মতে, বৈঠকে সাংবাদিকদের কয়েকটি বিষয় সম্পর্কে অবগত করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, সব কিছু নিয়েই আমাদের কাছে পর্যাপ্ত তথ্য প্রমাণ আছে, প্রয়োজনে সহ নথি সামনে আনা হবে।

পাকিস্তান প্ররোচনা দিলে ফের প্রত্যাঘাত করা হবে। পাক হামলায় আমাদের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। গত ২ দিনে ৩৫ বার সংঘর্ষ বিরতি করেছে পাকিস্তান। ভারতে এসে বোমা ফেলেছে পাক যুদ্ধবিমান।

পাক যুদ্ধবিমানের টার্গেট ছিল ভারতের সেনাঘাঁটি। সুনির্দিষ্ট ভাবে ব্রিগেড হেডকোয়ার্টার, ব্যাটেলিয়ন হেডকোয়ার্টার এবং লজিস্টিকস ইনস্টলেশনে বোমা ফেলার চেষ্টা করেছে পাকিস্তান।

এখনও সংঘর্ষ বিরতি করছে পাকিস্তান। ভুল এবং মিথ্যা তথ্য ছড়িয়েছে পাকিস্তান। বলা হয়েছিল, তিন বিমান সেনা পাইলটকে ধরতে পেরেছে পাকিস্তান। এই তথ্য ইচ্ছাকৃত ভাবে ছড়িয়েছে তারা। পাকিস্তান বলেছিল, তিনটি ভারতীয় বিমান ধ্বংস করেছে ওরা। এই তথ্যও সর্বৈব মিথ্যা।’