মুরগির ঠোকরে শেয়ালের অস্বাভাবিক মৃত্যু

মুরগির ঠোকরে শেয়ালের মৃত্যু। আমরা সবাই জানি মুরগির যম শেয়াল। কিন্তু সেই যম ফান্দে পড়লে তা কাবু হতে সময় লাগে না সেটি এবার প্রমাণ করে দিল ফ্রান্সের একদল মুরগি। ফ্রান্সের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ব্রিট্যানি’র এগ্রিকালচারাল স্কুল গ্রস চেনে এর খামারে একদল মুরগির ঠোকরে একটি শেয়ালের মৃত্যু হয়েছে।

জানা যায়, অটোম্যাটিক দরজার একটি খাঁচায় তিন হাজার মুরগির মধ্যে আটকে গেলে এই অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘটে শেয়ালটির।

এ ব্যাপারে খামারটির প্রধান প্যাসক্যাল ড্যানিয়েল ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি’কে বলেন, ‘খাঁচাটিতে থাকা মুরগিগুলো একসঙ্গে শেয়ালটির ওপর হামলা করে। শেয়ালটির গলায় ঠোকরের ফলে সৃষ্ট আঘাতের চিহ্ন ছিল।’ এদিকে শেয়ালটির মৃতদেহ ঘটনার একদিন পর খাঁচাটির এক কোণে পড়ে থাকতে দেখা যায়।

তাদের বার্তা সংস্থাটির প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, খাঁচাটি দিনের বেলায় খোলা রাখা হয় এবং বেশিরভাগ মুরগিই এসময় বাইরে থাকে। পাঁচ বা ছয় মাস বয়সী শেয়ালটি খাঁচার মধ্যে ঢোকার পর এর দরজাটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে গেলে প্রাণিটি আটকে যায়। এবং এমন অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘটে শেয়ালটির।