মুসলমাদের উপর সন্ত্রাসী হামলায় বিশ্ব রাষ্ট্রপ্রধানদের নিন্দার ঝড়

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে হ্যাগলি ওভাল মাঠের খুব কাছের একটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়েরা ওই মাঠে অনুশীলনে করছিলেন। অনুশীলন শেষে তারা মসজিদটিতে জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন। তবে তারা মসজিদে প্রবেশের আগেই এই হামলার ঘটনা ঘটায় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানিয়েছে, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় বন্দুকধারীর হামলায় এখন পর্যন্ত ৪৯ জন নিহত হয়েছেন । এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আহত হয়েছেন অসংখ্য। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

এ সন্ত্রাসী হামলায় বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদের ঝড় উঠে। এই সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিন্দার ঝড় উঠেছে।

বিশব্যাপী মুসলমানরা গণহত্যার শিকার হচ্ছেন জানিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, মুসলমানদের বিরুদ্ধে শত্রুতা অলসভাবে দেখছে বিশ্ব। এই মুসলমানদের যে ব্যক্তিগতভাবে হয়রানি করা হত, ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে সীমান্ত ছাড়িয়ে তা গণহত্যায় রূপ নিয়েছে।-খবর এএফপির

তিনি বলেন, এখনই যদি পদক্ষেপ নেয়া নয় হয়, তবে আমাদের আরেকটি বিপর্যয়ের খবর শুনতে হবে। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, আল্লাহ নিশ্চয়ই নিহতদের ক্ষমা করে দেবেন। আহতদের দ্রুত সুস্থ হওয়ার জন্য সহায়তা প্রয়োজন।-খবর গার্ডিয়ান

তিনি বলেন, এ হামলার ঘটনায় মুসলিম বিশ্বের পক্ষ থেকে নিউজিল্যান্ডের হতাহত নাগরিকদের প্রতি আমি শোক জানাচ্ছি। ইসলামবিদ্বেষ ও বর্ণবাদ বৃদ্ধির সর্বশেষ দৃষ্টান্ত হিসেবে এ ঘটনাকে দাঁড় করিয়েছেন মুসলিম বিশ্বের এ নেতা।

এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ কখনো ধর্ম হতে পারে না। নিহত ও তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি তিনি সমবেদন জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় গভীর শোক ও নিন্দা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্নের কাছে পাঠানো এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক ও নিন্দা প্রকাশ করেন। প্রধানমন্ত্রী অফিসের প্রেস উইং থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের নামাজের জন্য জড়ো হওয়া শান্তিপূর্ণ মানুষকে এলোপাতাড়ি গুলি করে হত্যার ঘটনাকে বেদনাদায়ক ও নৃশংস বলে উল্লেখ করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডানকে দেয়া এক বার্তায় হামলাকে নৈরাশ্যবাদী উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি আশা করি, এ হামলায় জড়িতদের মারাত্মক শাস্তি দেয়া হবে।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলাকারী একজন ডানপন্থী সন্ত্রাসী। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, একজন সহিংস ডানপন্থীর এ হামলার ঘটনায় আমরা নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।-খবর এএফপির।

ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের ওই হামলাকারী অস্ট্রেলিয়ায় জন্মগ্রহণকারী চরমপন্থী বলে তিনি সাংবাদিকদের কাছে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এই হামলার সঙ্গে তাদের দেশের কোনো সম্পর্ক রয়েছে কিনা, অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা বাহিনী তা তদন্ত করে দেখছে। এর বাইরে কোনো বিস্তারিত তথ্য তিনি দিতে অস্বীকার করেছেন। কিউদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তিনি বলেছেন, আমরা কেবল মিত্রই না, আমরা অংশীদার।

তাৎক্ষনিক নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেন, একাধিক জায়গায় চলমান হামলার ঘটনা মোকাবেলা করছি আমরা। তিনি বলেন, এটা নিউজিল্যান্ডের অন্যতম কালো দিন।