সরকারি চাকরিতে ৩ লাখ নিয়োগ

অবশেষে শিক্ষিত বেকারদের জন্য খুলছে চাকরির দ্বার। চলতি বছরেই তিন লাখ জনবল নিয়োগের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার। কয়েক মাসের মধ্যেই এসব নিয়োগের সার্কুলার দেয়া হবে। সরকারি, আধা সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন শূন্য পদের বিপরীতে এসব জনবল নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সম্ভাব্য নিয়োগের মধ্যে প্রায় পাঁচ হাজার লোক নিয়োগ হবে সরকারি প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা পদে। এ জন্য শিগগিরই ৪১তম বিসিএসের সার্কুলার হবে। ইতিমধ্যে ৪০তম বিসিএসের সার্কলার জারি হয়েছে। তিন লাখ নিয়োগের জন্য যেসব খাত বাছাই করা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে প্রথম শ্রেণির পদে ৫ হাজার, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীতে ৬০ হাজার, শিক্ষা খাতে ৪০ হাজার, স্বাস্থ্য খাতে ৩৫ হাজার, ব্যাংকিং খাতে ২০ হাজার অন্যতম।

Advertisement

এদিকে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, আগামী জুন মাস থেকে এই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে। বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের শূন্য পদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। ওইসব পদের মধ্যে ১০ শতাংশ শূন্য পদ রেখে বাকি পদে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহমেদ সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘পদ শূন্যের ভিত্তিতে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো জনবল নিয়োগ দেয়। শিক্ষিত বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানে সরকারি সংস্থাগুলোর শূন্য পদে লোক নিয়োগ চলমান প্রক্রিয়া। কিন্তু বর্তমানে কিছু কিছু খাতে শূন্য পদের সংখ্যা বেশি। এটি পূরণে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এদিকে সম্প্রতি বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থায় শূন্য পদের তথ্য এবং পদ পূরণের জন্য কর্মপরিকল্পনা চেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। খুব শিগগিরই তারা ওই তথ্য ও পরিকল্পনা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানোর পর নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে। সরকারি চাকরিতে ২০ লাখ ৫০ হাজার ৮৬১টি পদের মধ্যে বর্তমানে শূন্য রয়েছে তিন লাখ ৯৯ হাজার ৮৯৭টি পদ।

এর মধ্যে পুলিশে ৫০ হাজার, আনসার-ভিডিপি, বিজিবি ও দমকলসহ বিভিন্ন বাহিনীতে পাঁচ হাজার, শিক্ষা খাতে ৫০ হাজার, স্বাস্থ্য খাতে ৩০ হাজার, ব্যাংক সেক্টরে ২০ হাজার, খাদ্য, কৃষি মন্ত্রণালয় ও রেলওয়েতে ৬০ হাজার ও অন্যান্য খাতে ৫০ হাজার নিয়োগ দেয়া হবে।