হাফ ভাড়ার জন্য শিক্ষার্থীকে গলা ধরে নামিয়ে দিল হেলপার, ৩০ বাস জব্দ

আজ (৬ মার্চ) বুধবার সকাল রাজধানীতে স্টুডেন্ট ভাড়া না নিয়ে মিদুল নামের এক শিক্ষার্থীকে গলা ধরে বাস থেকে নামিয়ে দিয়েছে হেলপার। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ৩০টির বেশি বাস জব্দ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। আজ বুধবার সকাল ৯টা রাজধানীর খামারবাড়ি মানিক মিয়া অ্যাভিনিউতে এ ঘটনা ঘটে। চলে বেলা ১১টা ৪৫ পর্যন্ত।

জানা যায়, রাজধানীর সরকারি বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষার্থী মিদুলকে বিকাশ বাস থেকে নামানো হলে ঐ কলেজের শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়। পরে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় তেজগাঁও কলেজ ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা। বিজয় সরণি থেকে ঢাকা কলেজ ও আজিমপুর অভিমুখের ভিআইপি ২৭, বিকাশসহ বেশ কয়েকটি কোম্পানির গাড়িগুলো আটক করে।

এ সময় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী রুবেল ও স্বপ্নিল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা প্রায় এই রুটে চলাচল করি। প্রতিদিন কলেজে যাওয়া আসা করি। প্রায়ই সময় এরা দুর্ব্যবহার করে।’

এ সময় আটককৃত গাড়িগুলোর চালকেরা বলেন, ‘হাফ ভাড়া তো আমাদের হাতে না। আপনারা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাদের সঙ্গে কথা বলেন। আমরা তো নিরুপায়। আমরা কি করতে পারি। মালিক যা বলে আমরা তা করি।’

ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যে পুলিশের একটি দল আসে। সরেজমিনে দেখা যায়, আহাদ নামের পুলিশের এক কর্মকর্তা শিক্ষার্থীদের বুঝানোর চেষ্টা করেন। কথার এক পর্যায়ে বলেন, ‘তোমাদের এত সাহস কোথা থেকে আসল। তোমাদের দেখে নেব।’

এ সময় দায়িত্বরত এক পুলিশকে তিনি ভিডিও ধারণ করতে বলেন। পরে শিক্ষার্থীদের ভিডিও ধারণ করা হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা কিছুটা ভীত হয়ে আটককৃত গাড়ির চাবি হস্তান্তর করেন। এর পরে ছাত্রদের গ্রুপ ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এরপর পরিস্থিতির স্বাভাবিক হয়ে যায়।