অনেক নাটকের পর শপথ নিলেন মোকাব্বির খান

গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আটটি আসনে জয়লাভ করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এর মধ্যে বিএনপি ছয়টি ও গণফোরাম দুটি আসন পায়। গণফোরামের সুলতান মনসুর মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীকে লড়ে নির্বাচিত হন। গত ৭ মার্চ দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নেওয়ায় তাকে গণফোরাম থেকে বহিষ্কার করা হয়। একইদিন মোকাব্বির খানের শপথ নেওয়ার কথা থাকলেও আগের দিন সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন তিনি।

এদিকে, দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দুপুর ১২ টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিনের কাছে শপথ বাক্য পাঠ করেন তিনি। স্পিকারের সংসদ কার্যালয়ে এ শপথ অনুষ্ঠান হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্পিকারের একান্ত সচিব এমএ কামাল বিল্লাহ।

অন্যদিকে, গণফোরামের চুরি করা প্যাডে স্পিকারের কাছে শপথ নেয়ার আবেদন করেছেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির আহম্মেদ খান। গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য জগলুল হায়দার আফ্রিক এই তথ্য জানান।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) তিনি এ কথা জানান।

আফ্রিক বলেন, ‘দলের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে শপথ নিতে যাচ্ছেন মোকাব্বির খান। তিনি দলীয় প্যাড চুরি করে শপথ নেয়ার জন্য স্পিকারকে চিঠি দিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘মোকাব্বির কোথা থেকে, কিভাবে দলের প্যাড চুরি করেছেন, তা আমার জানা নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘নির্বাচিত কেউ শপথ নিবেন না, এখন পর্যন্ত আমাদের দল ও জোটের এই সিদ্ধান্ত বহাল রয়েছে। বিকেলে বৈঠক আছে। সেখানে মোকাব্বিরের বিষয়ে দলীয় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’